adv
২৫শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

আমিন ধ্বনিতে শেষ হলা বিশ্ব ইজতেমা

image_114279_0নিজস্ব প্রতিবেদক : মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের সন্তুষ্টি লাভ, মুসলিম উম্মাহর শান্তি, সমৃদ্ধি ও অগ্রগতি কামনার মধ্যদিয়ে আখেরি মোনাজাত শেষ হয়েছে তুরাগতীরে।
পরকালে আল্লাহর সান্নিধ্য লাভের আশায় লাখো মুসল্লি চোখের জলে অংশ নেন মোনাজাতে। ‘ছুম্মা আমিন ছুম্মা আমিন’ বলতে বলতে বহু মুসল্লিকে অঝোরে কাঁদতে দেখা যায় তুরাগ ময়দানে। বেলা ১১টা ২৫ মিনিটে মোনাজাত শুরু হয়ে শেষ হয় ১১টা ৫৪ মিনিটে।
মোনাজাত পরিচালনা করেন ভারতের বিশিষ্ট মাওলানা মো. সা’দ। মোনাজাতে মুসলিম উম্মাহর অব্যাহত শান্তি, সুখ ও মঙ্গল কামনা করা হয়। হেদায়েতের জন্য মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের কাছে ফড়িয়াদ করেন মুসল্লিরা। তারা ইহলৌকিক শান্তির পাশাপাশি পরকালে বেহেশত লাভের আশায় আল্লাহর অসীম রহমত কামনা করেন। জীবনের গুনাহখাত মাফ করার আবেদন জানান।
আজকের আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হল ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব। গত ১১ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হয় ইজতেমার প্রথম পর্বের মোনাজাত। মোনাজাতে অংশ নিতে সকাল থেকেই মানুষের ঢল নামে তুরাগতীরে। ২০ দলীয় জোটের টানা অবরোধ, সেই সঙ্গে তীব্র শীতের মধ্যে মুসুল্লিরা যেভাবে পারেন পৌছান টঙ্গীর ইজতেমা ময়দানে। টঙ্গী হয়ে উঠে সব পথের মোহনা।
আখেরি মোনাজাতে শরিক হতে শনিবার রাত থেকে মুসল্লিগণ বাস, ট্রাক, মিনিবাস, মাইক্রোবাস, ট্রেন ও ট্রলারে করে টঙ্গীতে আসা শুরু করেন। রাজধানী ঢাকা, গাজীপুর ও আশপাশের জেলার কয়েক লাখ লোক ভিড় এড়াতে নানা ঝক্কিঝামেলা উপেক্ষা করে রাতেই টঙ্গীতে অবস্থান নেন। অনেকেই  মূল প্যান্ডেলে স্থান না পেয়ে  নিজ উদ্যোগেই প্যান্ডেলের বাইরে পলিথিন ও কাপড়ের শামিয়ানা টানিয়ে অবস্থান নেন। কেউ কেউ ইজতেমাস্থলের কাছে আত্মীয়-স্বজনের বাসাসহ বিভিন্ন জায়গায় অবস্থান নেন।
মোনাজাত প্রচারের জন্য গণযোগাযোগ অধিদপ্তরের উদ্যোগে আব্দুল্লাহপুর ও বিমানবন্দর রোড পর্যন্ত এবং গাজীপুর জেলা তথ্য অফিসের উদ্যোগে ইজতেমা ময়দান হতে চেরাগআলী, টঙ্গী রেল স্টেশন, স্টেশন রোড ও আশপাশের অলিগলিতে পর্যাপ্ত মাইক সংযোগের ব্যবস্থা করা হয়।

 

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া