adv
২৪শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হিউসের মৃত্যুতে হতাশ অ্যাবট ক্রিকেট ছেড়ে দেবেন!

স্পোর্টস ডেস্ক : সামলে ওঠার চেষ্টায় আছেন মানসিকভাবে ভেঙে পড়া শন অ্যাবট, যার বাউন্সারেই লুটিয়ে দুই দিন পর মারা গেছেন ফিলিপ হিউস। নিউ সাউথ ওয়েলসের পেসারের সঙ্গে কথা বলে এই তথ্য দিয়েছেন ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রধান জেমস সান্ডারল্যান্ড।
সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে মঙ্গলবার শেফিল্ড শিল্ডে নিউ সাউথ ওয়েলস ও সাউথ অস্ট্রেলিয়ার ম্যাচে অ্যাবটের শর্ট বলে হুক করতে গিয়েই মাথায় আঘাত পান হিউস। অ্যাম্বুলেন্সে করে তাকে সেন্ট ভিনসেন্টস হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। মাথায় অস্ত্রোপচারের পরপরই চিকিতসকরা জানিয়েছিলেন, তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। দুই দিন মৃত্যুর সঙ্গে লড়ে হার মানেন হিউস। বৃহস্পতিবার না ফেরার দেশে চলে যান অস্ট্রেলিয়ার এই টেস্ট ব্যাটসম্যান।
বৃহস্পতিবারই অ্যাবটের সঙ্গে কথা বলেন সান্ডারল্যান্ড। এরপর তিনি অ্যাবটের সর্বশেষ মানসিক অবস্থার কথা জানান। আমি বৃহস্পতিবার রাতে তার সঙ্গে কথা বলেছি এবং সে যেভাবে সামলে ওঠার চেষ্টা করেছে, তাতে আমি মুগ্ধ।
কিছু সাবেক ক্রিকেটার ধারণা করেছিলেন, এই দুর্ঘটনার পর ২২ বছর বয়সী অ্যাবট হয়ত ক্রিকেট খেলাই ছেড়ে দেবেন। সিডনিতে শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে সান্ডারল্যান্ড অ্যাবটের পাশে থাকার কথা বলেন। আমরা এবং বিশেষজ্ঞরা অ্যাবটকে প্রয়োজনীয় সব সহযোগিতাই করব।
বুধবার সেন্ট ভিনসেন্টস হাসপাতালে হিউসকে দেখতে গিয়েছিলেন অ্যাবট। সেখানে তাকে অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্ক আর হিউসের বোন মেগান সান্ত্বনা দেন।
ইংল্যান্ডের সাবেক বোলার ডেভিড লরেন্সের একটি বলে ১৯৮৮ সালে মাথায় আঘাত পেয়েছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের ব্যাটসম্যান ফিল সিমন্স। মাথার অস্ত্রোপচারের পর অবশ্য সুস্থ্য হয়ে ওঠেন তিনি। পুরানো ওই ঘটনা মনে করে বিবিসি রেডিও ফাইভকে লরেন্স বলেন, জানি না, শন কিসের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। …আমার মনে হয় না সে আবার ক্রিকেট খেলবে।
 

 

জয় পরাজয় আরো খবর

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া