adv
২৯শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

গরীবের ৪ কোটি টাকা হাতিয়ে নিল প্রতারক সংস্থা- থানা ঘেরাও

ডেস্ক রিপোর্ট : রাজশাহীতে দ্বিগুণ মুনাফা দেওয়ার প্রলোভন দিয়ে ১০ হাজারের বেশি গ্রাহকের কাছ থেকে প্রায় চার কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে পপুলার সঞ্চয় ও ঋণদান সমবায় সমিতি নামের একটি প্রতারক সংস্থা। গ্রাহকদের অভিযোগের পর প্রতারক সংস্থাটির সভাপতি ইনতাজ আলীকে আটক করেছে নগরীর বোয়ালিয়া মডেল থানা পুলিশ। রবিবার রাতে তাকে আটক করা হয়। এরপর থেকে ইনতাজ আলী আছেন থানাহাজতে। আর টাকা ফেরত পেতে গ্রাহকরা থানা ঘিরে রেখেছেন। 

বোয়ালিয়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নুর হোসেন খন্দকার জানান, নগরীতে ১০ হাজারের বেশি গ্রাহককে দ্বিগুণ লাভের প্রলোভন দিয়ে সদস্য করে সংস্থাটির মাঠকর্মীরা। সরকারি অনুমোদন ছাড়াই দীর্ঘদিন ধরে আর্থিক লেনদেন চালিয়ে আসছিল সংস্থাটি। গ্রাহকদের কাছ থেকে প্রায় ৪ কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়া হয়েছে। গ্রাহকরা প্রতারণার বিষয়টি বুঝতে পেরে থানায় অভিযোগ করেন। এরপর ইনতাজ আলীকে তার গোরহাঙ্গা কার্যালয় থেকে আটক করা হয়। প্রতারিত নগরীর নারকেলবাড়িয়ার মারুফা জানান, তারা চার ভাইবোন মিলে সংস্থাটিতে সাড়ে ৬ লাখ টাকা জমা দেন। কিন্তু তিন বছরে তাদের কোনো মুনাফা দেওয়া হয়নি। ডিঙ্গাডোবা এলাকার আমিন উদ্দিন জানান, তিনি একাই সাড়ে ৬ লাখ টাকা জমা দিয়েছিলেন। তিনিও কোনো লাভ পাননি। মাঠকর্মীদের কাছে গেলে তারাও কোনো সমাধান করতে পারেননি। এ কারণে তারা থানায় অভিযোগ করেছেন। 

প্রতারক সংস্থাটি ২০১০ সাল থেকে রাজশাহীতে কাজ করছে। ইনতাজ আলী সংস্থাটির সভাপতি। এ বছরের ২৯ সেপ্টেম্বর থেকে সংস্থাটির শীর্ষ পদে থাকা ব্যক্তিরা আত্মগোপনে চলে যান। ফলে মাঠকর্মীরা গ্রাহকদের রোষানলে পড়েন। সংস্থাটির মাঠকর্মী রোমানা জানান, গ্রাহকদের কাছ থেকে টাকা নিয়ে তারা সংস্থাটিতে জমা দিয়েছিলেন। কিন্তু গ্রাহকদের কোনো লাভ দিতে পারছিলেন না। এ কারণে রবিবার রাতে তারা ইনতাজ আলীকে পুলিশের হাতে তুলে দেন।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া