adv
২৫শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

খালেদাকে হানিফের প্রশ্ন – আপনি কি রাস্তার সন্তান?

খালেদা-হানিফ আপনি কি রাস্তার সন্তান? আপনি কি রাস্তার সন্তান? Untitled 14নিজস্ব প্রতিবেদক : আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বেগম জিয়ার উদ্দেশ্যে বলেছেন, একবার নয় দুইবার নয়, বহুবার বহুজনে আপনাকে মিথ্যা জম্মদিন পালন না করার অনুরোধ জানিয়ে আসছে। কিন্তু আপনি অনুরোধ রাখেননি। 
হানিফ বলেন, যাদেরকে রাস্তায় কুঁড়ে পাওয়া য়ায় তাদের জšে§র ঠিক থাকে না। আপনার তিনটা জš§দিন হয় কীভাবে? আমার প্রশ্ন, তাহলে আপনি কি রাস্তার সন্তান? আমরা বহুবার আপনাকে ১৫ আগস্ট জš§দিন পালন না করার আহ্বান জানিয়েছি কিন্তু আপনি রাখেননি। যদি এবারও জš§দিন পালন করেন তাহলে ভেবে নেবো আপনি সত্যিই রাস্তার সস্তান।
আজ শনিবার দুপুরে শিল্পকলা একাডেমির মহড়া কক্ষে বঙ্গবন্ধু সাংস্কতিক জোট আয়োজিত বেগম ফজিলাতুন্নেছার ৮৪তম জš§বার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় এ কথা বলেন তিনি।
বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলামের বক্তব্যের সমালোচনা করে হানিফ বলেন, ‘উনি বলেছেন, সম্প্রচার নীতিমালা সংবাদপত্রের কণ্ঠরোধ করবে। যদি সংবাদপত্রের কণ্ঠরোধ করা হয় তাহলে আপনার বক্তব্য কীভাবে প্রচার হয়। একজন ফেরারি আসামির (তারেক রহমান) ভিডিও বার্তা কী করে সংবাদ মাধ্যমে প্রচার হয়। জাতীয় সম্প্রচার নীতিমালা সংবাদ মাধ্যমের চাহিদা অনুযায়ী করা হয়েছে। সংবাদপত্রের স্বাধীনতাতো ধর্মান্ধতাকে  উসকে দিতে পারে না। চাঁদে সাঈদীকে  দেখা গেছে এমন সংবাদ প্রচার হতে পারে না। এর পরও যদি আপনারা কণ্ঠরোধ বলেন তাহলে কিছু করার নেই। আওয়ামী লীগ গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে, সংবাদপত্রের কণ্ঠরোধ বিশ্বাস করে না।
খালেদা জিয়ার উদ্দেশে তিনি বলেন, একাত্তরের ঘাতকদের আপনার স্বামী (জিয়াউর রহমান) আশ্রয় প্রশয় দিয়েছে। তাই আপনিও ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসে প্রতিহিংসা বশত মিথ্যা জš§দিন পালন করেন।

খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম বলেন, এবার যদি ভিডিও বার্তা আউট সোর্সিং এর মাধ্যমে আন্দোলন করেন তাহলে খবর আছে। এর উপযুক্ত জবাব দেয়া হবে। ভবিষ্যতে আউট সোর্সিং-এ আন্দোলনের কোনো সুযোগ নেই। বিএনপি যে তত্তাবধায়ক সরকারের দিবা স্বপ্ন দিখছে তা স্বপ্নই থেকে যাবে। আর আগামী নির্বাচন হবে ২০১৯ সালে। আপনারা আন্দোলনের কথা বলবেন আর আমরা আগামী ৫ বছর প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে উন্নয়ন করে যাব।’
সংগঠনের সভাপতি তারানা হালিম এমপির সভাপতিত্বে আরো উপস্থিত ছিলেন- আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক অ্যাড.আফজাল হোসেন, প্রবীণ অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামান, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, স্বাধীন বাংলাবেতার কেন্দ্রের শিল্পী মনরঞ্জন ঘোষাল, অগ্রণী ব্যাংকের পরিচালক বলরাম পোদ্দার, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক অরুন সরকার রানা প্রমুখ।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া