adv
২১শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ফেসবুকের বান্ধবীকে বেহুঁশ করে ধর্ষণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ফেসবুকে আলাপ৷ তারপর ডেটিং৷ সুযোগ বুঝে বান্ধবীকে বেড়াতে গিয়ে তাকে বেঁহুশ করে ধর্ষণ৷ শুধু তাই নয় ধর্ষণের অপরাধ চাপতে বান্ধবীকে অশ্লীল ছবি দেখিয়ে ব্ল্যাক মেলিং৷ তবে শেষ রক্ষা হল না৷ পুলিশের পাতা ফাঁদে পা দিয়ে ধরা পড়ল অভিযুক্ত ইঞ্জিনিয়ারিং এর ছাত্র ঋষভ কোটাডিয়া৷ গুজরাতের ভাবানগরের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং-এর ছাত্র ঋষভ৷ ছ'মাস ধরে বছর ২৩ এর এক ইঞ্জিনিয়ার মহিলাকে উত্ত্যক্ত ও ব্ল্যাক মেল করার পর এখন শ্রীঘরে ঠাঁই হয়েছে তার৷
পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বছর ২৩ -এর সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার ইন্ডোরের শ্রেয়ার (নাম পরিবর্তিত) সঙ্গে ফেসবুকে পরিচয় ঋষভের৷ সেখান থেকে বন্ধুত্ব৷ জানুয়ারিতে বান্ধবীর সঙ্গে দেখা করতে গুজরাত থেকে মধ্যপ্রদেশে আসে ঋষভ৷ মেয়েটিক ঘোরাতে নিয়ে যাওয়ার নাম করে একটি কফিশপে যায় সে৷ সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার শ্রেয়ার অভিযোগ, কফিতে ঘুমের ওষুধ মিশিয়ে বেঁহুশ করে তাকে ধর্ষণ করে ঋষভ৷ মোবাইলে তুলে রাখে সেই ছবি৷ জ্ঞান ফিরতে সেই ছবি দেখিয়ে তাকে মুখ বন্ধ করে রাখার জন্য চাপ দেয় ঋষভ৷ টানা তিন দিন ধরে তার উপর চলে শারীরিক নির্যাতন৷
পুলিশ জানিয়েছে, এরপর ছেলেটি গুজরাতে ফিরে যায়৷ তার কিছুদিন পর থেকে অশ্লীল ছবি দেখিয়ে মেয়েটির উপর সে বিয়ে করার জন্য চাপ সৃষ্টি করে৷ মেয়েটি রাজি না হওয়ায় তাকে খুনের হুমকি দেয় সে৷ বলে ছবি ফাঁস করে দেবে৷
প্রথমে ভয় পেয়ে শ্রেয়া চুপ থাকলেও, শেষ পর্যন্ত পুলিশের দ্বারস্থ হন৷ পুলিশের কথামতোই জরুরি দরকার জানিয়ে ঋষভকে ইন্দোরে আসতে বলেন শ্রেয়া৷ ঋষভ এলে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।
ঋষভের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির  ৩৭ছ ধারায় (ধর্ষণ), ৩৫৪ ( নির্যাতনি), ৫০৬ এবং আইটি অ্যাক্টের ৬৬ এ ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে।

 

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া