adv
২২শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইতিহাস গড়ে কোয়ার্টার ফাইনালে কোস্টারিকা

ছবি: সংগৃহীতস্পোর্টস ডেস্ক : কোস্টারিকার জয় নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল নির্ধারিত সময়ের খেলায়। এক মিনিট বাকি থাকতে হঠাৎ বজ্রপাত কোস্টারিকার উপর। গ্রিস গোল পরিশোধ করে দিলো। শেষ পর্যন্ত ভাগ্যের খেলায় কোস্টারিকাই জিতলো। তারা টাইব্রেকারে গ্রিসকে ৫-৩ গোলে হারিয়ে ফুটবলকে নতুন উচ্চতায় নিয়ে গেছে। গোলরক্ষক কেইলর নাভাসের নৈপুণ্যে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের শেষ আটে পৌঁছেছে মধ্য আমেরিকার দেশটি।
গ্রিসের পক্ষে চতুর্থ শটটি নিতে আসা থিওফানিস গেকাসের শট ফিরিয়ে বিশ্বকাপের চমক কোস্টা রিকার জয়ের নায়ক নাভাস। গোলশূন্য প্রধমার্ধের পর ৫২তম মিনিটে ব্রায়ান রুইসের গোলে এগিয়ে যায় কোস্টা রিকা। আর যোগ করা সময়ে সক্রাটিস পাপাস্তাথোপুলোসের গোলে সমতা ফেরায় গ্রিস। এরপর অতিরিক্ত সময়ে গোল করতে পারেনি কোনো দলই।
অস্কার দুরাতে লাল কার্ড পাওয়ার পর দশ জন নিয়ে প্রায় এক ঘণ্টা খেলতে হয় কোস্টা রিকাকে। তিন সাবেক চ্যাম্পিয়ন ইতালি, উরুগুয়ে ও ইংল্যান্ডের সঙ্গে মৃত্যুকূপ 'ডি' গ্র“পে ছিল কোস্টারিকা। গ্র“প চ্যাম্পিয়ন হিসেবে দ্বিতীয় রাউন্ডে ওঠা দলটি কোয়ার্টার-ফাইনালে খেলবে গতবারের রানার্সআপ নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে।
রোববার রেসিফির আরেনা পের্নামবুকোয় প্রথমার্ধে বেশি সুযোগ তৈরি করতে পারেনি কোনো দলই। কোস্টা রিকা আক্রমণাত্মক ফুটবল খেললেও গ্রিসের দুর্ভেদ্য রক্ষণ দুর্গ ভাঙতে পারেনি। অষ্টম মিনিটে ২৫ গজ দূর থেকে রুইসের আচমকা শটই প্রথমার্ধে তাদের সেরা সুযোগ।
রক্ষণ সামলে সুযোগ পেলে পাল্টা আক্রমণে যাচ্ছিল গ্রিস। ১২, ২৮ আর ৩৭তম মিনিটে তিনটি সুযোগ হাতছাড়া করে সাবেক ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নরা। ৩৭তম মিনিটে গ্রিসের সেরা সুযোগটি ব্যর্থ করে দেন ম্যাচ সেরা নাভাস। হোজে হোলাবাসের ক্রস থেকে দিমিত্রিস সালপিনগিদিসের শট কোনো মতে ঠেকান তিনি। ৫২তম মিনিটে খেলার ধারার বিপরীতে গোল করে কোস্টা রিকাকে এগিয়ে নেন রুইস। ক্রিস্তিয়ান বোলানোসের পাস ডি বক্সের বাইরে খুঁজে পায় রুইসকে। বাঁ পায়ের জোরালো শটে ডান প্রান্ত দিয়ে বল জালে জড়াতে কোনো সমস্যা হয়নি কোস্টা রিকার অধিনায়কের।
৬৬তম মিনিটে হোলেবাসকে ফাউল করে দুরাতে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখলে দশ জনের দলে পরিণত হয় কোস্টা রিকা। এরপর রক্ষণেই বেশি মনোযোগ দিতে হয় হোর্হে লুই পিন্তোর শিষ্যদের।
চার মিনিট পর দারুণ একটি সুযোগ পায় গ্রিস। তবে সুবিধাজনক জায়গায় থেকেও লাজারুস ক্রিস্তোদুলোপুলোস বাইরে মারলে বেঁচে যায় মধ্য আমেরিকার দেশটি।
পিছিয়ে পড়ার পর কোস্টা রিকার রক্ষণভাগের ওপর মারাত্মক চাপ তৈরি করে গ্রিস। নব্বই মিনিট পর্যন্ত ঠেকিয়ে রাখলেও শেষ রক্ষা হয়নি দলটির। যোগ করা সময়ে গোল করে দলকে সমতায় আনেন সক্রাটিস পাপাস্তাথোপুলোস।
কোনস্তানতিনোস মিত্রোগ্লোয়ের ফ্লিক থেকে বল পেয়েছিলেন গেকাস। তার জোরালো শট কোনোমতে ঠেকান নাভাস। কিন্তু ফিরতি বলে পাপাস্তাথোপুলোসের শট আর ফেরাতে পারেননি তিনি। তাই খেলা গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে।
অতিরিক্ত সময়ের দ্বিতীয়ার্ধে দারুণ একটি সুযোগ হাতছাড় করেন ক্যাম্পবেল। হোসে মিগেল কুবেরো ক্রসে ডি বক্সে পা ছোঁয়াতে পারেননি কোস্টা রিকার এই ফরোয়ার্ড।
প্রতি-আক্রমণ থেকে ভালো একটি সুযোগ পায় গ্রিসও। কোস্টা রিকার দুই জনের বিপরীতে গ্রিসের পাঁচ জন ছিলেন দলটির রক্ষণসীমায়। মিত্রোগ্লোউর কাছ থেকে সুবিধাজনক জায়গায় বল পেয়েও নাভাসের গায়ে মেরে সুযোগটি হাতছাড়া করেন লাজারুস ক্রিস্তোদুলোপুলোস। খেলার অন্তিম সময়ে নাভাসকে একা পেয়েও তার গায়ে বল মেরে আরেকটি সুযোগ হাতছাড়া করেন মিত্রোগ্লোউ।
অতিরিক্ত সময়ের খেলা শেষে গ্রিসের কোচ ফের্নান্দো সান্তোসকে লাল কার্ড দেখান রেফারি। তাই টাইব্রেকারের আগেই টাচ লাইন ছাড়তে হয় তার।
টাইব্রেকারে কোস্টা রিকার পক্ষে প্রথম চারটি শটে গোল করেন সেলসো বোর্হেস,রুইস, জিয়ানকারলো গনসালেস ও ক্যাম্পবেল।
গ্রিসের পক্ষে মিত্রোগ্লোউ , লাজারস, হোলেবাস লক্ষ্যভেদ করলেও পারেননি গেকাস। তার শটটি ডান দিকে ঝাঁপিয়ে পড়ে বাঁ হাতে ঠেকান লেভান্তের গোলরক্ষক নাভাস।
পরের শটে মিচেল উমানা জাল খুঁজে পেলে উল্লাসে মেতে উঠে কোস্টা রিকা। প্রথমবারের মতো দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠা গ্রিসের বিদায় নিশ্চিত হয়ে যায়।

 

জয় পরাজয় আরো খবর

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া