adv
২১শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সুরঞ্জিতের প্রশ্ন- উপজেলা চেয়ারম্যানকে হত্যার সময় প্রশাসন কী করেছে?

উপজেলা চেয়ারম্যানকে হত্যার সময় প্রশাসন কী করেছে: সুরঞ্জিতের প্রশ্ন  নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত বলেছেন, একটি মহল সুপরিকল্পিতভাবে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে নারায়ণগঞ্জ, লক্ষ্মীপুর ও ফেনীর হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে। এরা এদেশের সাংবিধানিক ও গণতান্ত্রিক ধারা ব্যাহত করতে চায়। এদের ব্যাপারে সতর্ক হতে হবে।
আজ (শুক্রবার) দুপুরে ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স মিলনায়তনে ‘আওয়ামী লীগ নেতা ইলিয়াস আহম্মেদ চৌধুরীর স্মরণ সভা ও চলমান রাজনীতি’শীর্ষক আলোচনা সভায়  তিনি এসব কথা বলেন। আইন-বিচার ও সংসদ বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত আরও বলেন, নারায়ণগঞ্জ, ফেনী ও লক্ষীপুরের ঘটনা একই উদেশ্যে, একই সুত্রে গাঁথা এবং একইভাবে সংগঠিত হয়েছে। 
এ ঘটনার পেছনে যারা আছে, তারা গণতন্ত্রের শত্র“। এদের প্রশ্রয় আশ্রয় দেয়ার সুযোগ নেই। নারায়ণগঞ্জের সাত খুনের মূল আসামি নূর হোসেনসহ দায়ী ব্যক্তিদের আইনের আওতায় আনতে হবে।
তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জ, লক্ষ্মীপুর ও ফেনী উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। সুসংবাদ হলো, নারায়ণগঞ্জের ঘটনায় সংশ্লিষ্ট র‌্যাব কর্মকর্তাকে খুনের মামলায় গ্রেফতার করা হয়েছে। এটা নারায়ণগঞ্জের জনগণের স্বতঃফূর্ত প্রতিবাদের বিজয়। নারায়ণগঞ্জ আমাদের দেশের গুরুত্বপূর্ণ শিল্প নগরী। আমরা চাই, নারায়ণগঞ্জ শান্ত হোক, মানুষ নির্বিঘ্নে চলুক, আইনের শাসন প্রতিষ্ঠিত হোক।
সত্য কথা বললে অনেকে ভুল বোঝে দাবি করে সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, "ফেনীতে এই পৈচাশিক হত্যাকাণ্ড ঘটলো, ফেনীতে প্রশাসন, র‌্যাব, সিআইডি ইত্যাদি ছিল না? প্রশাসনিক তৎপরতায় এ পৈশাচিক খুন বন্ধ করা গেলে আমরা তাদের প্রশংসা করতাম। নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের সভাপতিকে প্রকাশ্য দিবালোকে হত্যা করা হয়েছে। প্রশাসন কী করেছে?"  
বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলামের বক্তব্যের নিন্দা জানিয়ে সুরঞ্জিত বলেন, যেখানে হত্যাকাণ্ডের তদন্ত শেষ হলো না, প্রধান আসামি গ্রেপ্তার হলো না, আপনি সেখানে সব দোষ সরকারের উপর চাপাচ্ছেন।
‘আওয়ামী লীগের ভেতরের কোন্দলের কারণেই এই হত্যাকাণ্ড হয়েছে’ ফখরুলের এমন বক্তব্যের জবাবে তিনি বলেন, আপনি (মির্জা ফখরুল) বিবেকবান মানুষ। কিন্তু আপনার এই কথার দ্বারা মনে হচ্ছে দলের বাইরে আপনার স্বাধীন চিন্তা করার কোন ক্ষমতা নেই।
বঙ্গবন্ধু একাডেমির সভাপতি হুমায়ূন কবিরের সভাপতিত্বে স্মরণ সভায় আরও বক্তব্য রাখেন, সাম্যবাদী দলের নেতা হারুন চৌধুরী, আওয়ামী লীগ নেতা আসাদুজ্জামান, রেজাউল করিম প্রমুখ।

 

জয় পরাজয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া