adv
২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

স্বামী অপহরণে রিজওয়ানার মামলা

ডেস্ক রিপোর্ট : নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লায় আবু বক্কর সিদ্দিক লিটু নামে গার্মেন্টস কর্মকর্তাকে অপহরণের ঘটনায় মামলা হয়েছে। মামলায় অজ্ঞাত পরিচয় ৭ থেকে ৮ জনকে আসামি করা হয়েছে। বুধবার রাত সাড়ে ৮টায় আবু বক্কর সিদ্দিকের স্ত্রী বাংলাদেশ পরিবেশ আইনজীবী সমিতির (বেলা) নির্বাহী পরিচালক পরিবেশ আইনবিদ সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

মামলার বরাত দিয়ে ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আকতার হোসেন জানান, মামলায় রিজওয়ানা অভিযোগ করেছেন, দুপুরে ফতুল্লার দাপা এলাকার হামিদ ফ্যাশন থেকে ঢাকা যাওয়ার পথে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডের দেলপাড়া ভূইয়া ফিলিং স্টেশনের কাছে অজ্ঞাত পরিচয় দুর্বৃত্তরা তার স্বামীকে অপহরণ করেছে। অজ্ঞাত পরিচয় ৭ থেকে ৮ জন দুর্বৃত্ত এ ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্ত।
মামলায় আরো বলা হয়েছে, রিজওয়ানা পরিবেশগত আন্দোলনের সঙ্গে সম্পৃক্ত। এ কারণে তার ওপর আক্রোশবসত দুর্বৃত্তরা আবু বক্কর সিদ্দিককে অপহরণ করেছে। আর পুরো ঘটনাটি পরিকল্পিত।
নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম জানান, মামলাটি গ্রহণ করা হয়েছে। তবে এর আগেই পুলিশ, র‌্যাব ও ডিবির ১২ট টিম পৃথকভাবে কাজ শুরু করে দিয়েছে। সারাদেশের সব পুলিশ স্টেশনকে বিষয়টি জানানো হয়েছে। প্রযুক্তির সর্বোচ্চ ব্যবহার ঘটানো হচ্ছে। অন্যদিকে আবু বক্কর সিদ্দিকের গাড়ির চালক রিপনকে র‌্যাব জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে গেছে।
আবু বক্কর সিদ্দিক ফতুল্লার হামিদ সোয়েটার কারখানায় নির্বাহী পরিচালক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। হামিদ সোয়েটারের সুপারভাইজার জিল্লুর রহমান জানান, ২০১২ সালের শ্রমিক অসন্তোষ ও কাজ না থাকার কারণে হামিদ সোয়েটার ও ফ্যাশন বন্ধ ঘোষণা করে কার্যক্রম আশুলিয়ায় স্থানান্তরিত করেন মালিক বর্তমান সরকারের বিদ্যুত ও জ্বালানী প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু। তখন অপহৃত আবু বক্কর সিদ্দিক লিটু নির্বাহী পরিচালক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। নসুরুল হামিদ বিপু ও আবু বক্কর সিদ্দিক ঘনিষ্ট বন্ধু বলে জানান তিনি। 
এ বছর ফেব্র“য়ারি মাসে কারখানাটি হামিদ সোয়েটার নামে পুণরায় চালু করেন আবু বক্কর সিদ্দিক লিটু। কারখানাটি ভাড়া নেয়ার ব্যাপারে তিনি পূর্বের মালিকের সঙ্গে মৌখিকভাবে আলোচনা করলেও এখন বিষয়টি চূড়ান্ত না হওয়ায় তিনি নির্বাহী পরিচালক হিসেবেই দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।
জিল্লুর রহমান আরোও জানান, আবু বক্কর সিদ্দিকের সঙ্গে কারো কোনো শত্র“তা ছিলনা অথবা কারখানার শ্রমিকদের মাঝে কোনো প্রকার অসন্তোষ ছিলো না।
তিনি আরও জানান, দুপুর ২টা ২০ মিনিটে আবু বক্কর সিদ্দিক কারখানা থেকে তার গাড়ি নিয়ে বের হয়ে যান। এর ২৫ থেকে ৩০ মিনিট পর তার ব্যক্তিগত চালক রিপন তার ভাগিনা রণির কাছে ফোন দিয়ে অপহরণ হওয়ার কথা জানান।
রিপনের বরাত দিয়ে তিনি বলেন, তাদের গাড়িটি ভূইগড় এলাকায় ভূঁইয়া ফিলিং স্টেশনের সামনে পৌঁছালে একটি হাইয়েস গাড়ি তাদের প্রাইভেটকারটি ধাক্কা দেয়। এ সময় গাড়ির কোনো ক্ষতি হয়েছে কিনা দেখতে ড্রাইভার রিপন গাড়ি থেকে নামলে তার চোখে মরিচের গুড়ো জাতীয় কিছু ছিটিয়ে দিয়ে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে আবু বক্কর সিদ্দিককে অপহরণ করে নিয়ে যায়। পরে ড্রাইভার রিপন স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে এলে রণিকে ফোন দিয়ে অপহরণের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। অপহরণকারীরা শুধুমাত্র আবু বক্কর সিদ্দিককে অপহরণ করে নিয়ে যায়। তার ব্যবহার করা মোবাইল ফোনও গাড়ির ভেতরে ফেলে গেছে।
এদিকে আবু বক্কর সিদ্দিকের ভাগিনা ফয়সাল রণি জানান, তার মামাকে উদ্ধারে পরিবারের পক্ষ থেকে প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে যোগাযোগ করা হচ্ছে।
অপরদিকে পুরো ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী আবুল কালাম নামের একজন যুবক পুলিশ ও সাংবাদিকের জানান, অপহরণকারীরা গাড়ি নিয়ে ঢাকার দিকে চলে যায়।
বুধবার রাতে আবুল কালাম নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে উপস্থিত হয়ে জানান, তিনি ফতুল্লার জামতলায় একটি গাড়ি মেরামতের গ্যারেজে কাজ করেন। দুপুর সোয়া ৩টার দিকে একটি গাড়িতে করে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোড দিয়ে সাইনবোর্ড যাচ্ছিলেন গাড়িতে গ্যাস ভরতে। তাদের গাড়িটি দেলপাড়া ভূঁইয়া ফিলিং স্টেশনের সামনে গেলে একটি গাড়ি থেকে এক ব্যক্তিকে (আবু বক্কর সিদ্দিক) জোর করে টেনে হেঁচড়ে নামানোর দৃশ্য দেখি। 
টি শার্ট পরা কয়েকজন যুবক ওই ব্যক্তিকে জোর করেই তাদের একটি নীল রঙয়ের গাড়িতে উঠিয়ে সাইনবোর্ডের দিকে যাচ্ছিল। তার পেছনেই ছিল আবুল কালামের গাড়ি। দুটি গাড়ি সাইনবোর্ড এলাকাতে পৌঁছানোর পর আবুল কালামের গাড়ি সড়কের পূর্ব পাশে চৌরঙ্গী সিএনজি পাম্পে প্রবেশ করে আর নীল রঙয়ের গাড়িটি ঢাকার দিকে চলে যায়। কালাম জানান, নীল রঙয়ের যে গাড়ি দিয়ে অপহরণ করা হয়েছে তার পেছনে নাম্বার প্লেটের পুরো নাম্বারটি মনে রাখা সম্ভব হয়নি। তবে নাম্বারের আগে ‘চট্ট মেট্রো’ শব্দ দুটি মনে আছে।

 

জয় পরাজয় আরো খবর

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া