adv
১০ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৬শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শাহবাগে বাসে অগ্নিদগ্ধ যুবকের মৃত্যু

image_64487ঢাকা: রাজধানীর শাহবাগে শিশুপার্কের সামনে বিহঙ্গ পরিবহনের একটি বাসে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় দগ্ধ যুবক নাহিদ মোড়ল (২২) মারা গেছেন। আজ বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) কর্তব্যরত সহকারী রেজিস্ট্রার হোসাইন ইমাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, আগুনে নাহিদের শরীরের ৫৩ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল। শ্বাসনালি পুড়ে যাওয়ায় খুব তাড়াতাড়ি তার মৃত্যু হয়।

নাহিদ মালয়েশিয়া যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। তার বাড়ি শিবচরের মোড়লকান্দি গ্রামে। তার বাবার নাম সোহরাওয়ার্দী মোড়ল।

বার্ন ইউনিটে থাকা তার ভাই রাসেল মোড়ল কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, সকালে বাবার সঙ্গে পেঁয়াজ খেতে কাজ করেছে নাহিদ। দুপুরে খাওয়ার পর জ্যাকেট কেনার কথা বলে সে ঢাকায় যায়। যাওয়ার আগে তার (রাসেল) কাছ থেকে ১০০ টাকা এবং আরেক ভাইয়ের কাছ থেকে এক হাজার ৮০০ টাকা নেয় নাহিদ। তিনি বলেন, সন্ধ্যার পর নাহিদ ফোন করে তাকে জানায়, তার গাড়িটিতে আগুন ধরেছে। সে আর বাঁচবে না। এ খবর পেয়ে তিনিসহ ভাইয়েরা তৎক্ষণাৎ ঢাকার উদ্দেশে রওয়ানা দেন।

রাসেল মোড়ল বলেন, হাসপাতালে নাহিদকে দেখে চিনতে পারেননি তারা। কারণ তার মুখ আগুনে পুড়ে বিকৃত হয়ে গেছে। তারা তাকে পা দেখে চিনেছেন।

শাহবাগ এলাকায় শিশুপার্কের সামনে মিরপুরগামী বিহঙ্গ পরিবহনের বাসে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে অগ্নিসংযোগের এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শাহবাগ শিশুপার্কের সামনে যাওয়ার পরই বাইরে থেকে কেউ বাসটি লক্ষ্য করে পেট্রলবোমা ছুঁড়ে মারে। এরপর তারা হঠাৎ করেই বাসের সামনের দিকে আগুন দেখতে পান। সেই আগুন মুহূর্তেই ভেতরের দিকে ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার লাইটপোস্ট ভেঙে সড়ক বিভাজকের ওপর উঠে যায়। আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়লে অন্তত ১৮ জন দগ্ধ হন।

নাহিদ ছাড়া অগ্নিদগ্ধ অন্য ব্যক্তিরা হলেন গাড়ির চালক মাহবুবুর রহমান, চালকের সহকারী হাফিজুল ইসলাম, রবিন, পুলিশের হাবিলদার নূরনবী, আইনজীবী খোদেজা নাসরিন, বরিশালের ভেদরগঞ্জ উপজেলার হিসাব কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর হোসেন মৃধা, পূবালী ব্যাংকের শ্যামবাজার শাখার জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা মাছুমা আকতার, ফার্স্ট সিকিউরিটি ব্যাংকের জুনিয়র অফিসার শফিকুল ইসলাম, ব্যবসায়ী আবু তালহা, বেসরকারি একুশে টেলিভিশনের মুক্ত খবরের সাংবাদিক সুস্মিতা সেন ও তার মা গীতা সেন, আমজাদ হোসেন, রাহাবুল, রিয়াজ, শামীম, আবদুর রাজ্জাক ও মাসুদ।

জয় পরাজয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ
November 2013
M T W T F S S
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
252627282930  


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া