১৫ই অক্টোবর, ২০১৮ ইং | ৩০শে আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

adv

জিম্বাবুয়ে সিরিজেই অধিনায়ক মাশরাফি

mashস্পোর্টস ডেস্ক :বোর্ড সভায় দুই ফরম্যাটের জন্য আলাদা অধিনায়ক বেছে নেওয়ার আলোচনা হলেও তা নিয়ে এত দিন লুকোছাপা ছিল। কালও তা নিয়ে রাখঢাক করতে করতে অবশেষে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান যা বলে দিলেন, তাতে সেটাকে একরকম চূড়ান্ত বলেই ধরে নেওয়া যায়। তবে তিনি এমন দিনের দুপুরে কথাগুলো বললেন, যেদিন রাতেই জান্নাতুল কিফায়াতের সঙ্গে মালা বদল করলেন মুশফিকুর রহিম। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে থাকতেই অধিনায়কত্ব নিয়ে ফিসফিসানিটা কানে যাওয়ার কথা তাঁর। তাই বাংলাদেশকে শুধুই টেস্টে নেতৃত্ব দেওয়ার মানসিক প্রস্তুতিও হয়তো নিতে শুরু করে দিয়েছিলেন। আর সেই নিয়তির অনানুষ্ঠানিক ঘোষণাটা কিনা এলো তাঁর বিয়ের দিনেই!
বিয়ের জন্য অনেক আগেই বিসিবির কাছ থেকে ছুটি নিয়ে রেখেছিলেন বলে এশিয়ান গেমসগামী ক্রিকেট দলে নেই মুশফিক। তাঁর জায়গায় তাই মাশরাফি বিন মর্তুজার কাঁধে তুলে দেওয়া হয় এই দলটির নেতৃত্বভার। কাল দুপুরে সেই দলটির সঙ্গে ফটোসেশন করতে এসে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি নাজমুল একরকম জানিয়েই দিলেন যে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে এ ফাস্ট বোলারই হতে চলেছেন অধিনায়ক। আর সেটি জিম্বাবুয়ে দলের আসন্ন বাংলাদেশ সফরের পাঁচ ওয়ানডের সিরিজ থেকেই। যদিও আনুষ্ঠানিক ঘোষণার জন্য আগামী মঙ্গলবারের বোর্ড সভা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে চান তিনি।
শুরুতে যদিও বিষয়টা চেপেই যেতে চেয়েছিলেন বিসিবি সভাপতি। মাশরাফিকে নেতৃত্ব দেওয়াটা দুই ফরম্যাটের জন্য আলাদা অধিনায়ক বেছে নেওয়ার কোনো ইঙ্গিত কি না, এমন প্রশ্নের জবাবেও তারই প্রতিফলন, ‘এখানে (এশিয়ান গেমসে) যেহেতু মুশফিক নেই, তাই একজনকে নেতৃত্ব দিতেই হতো। তাই মাশরাফিকে অধিনায়ক করা হয়েছে।’ এটা বলেছেন তবে পৃথক অধিনায়কের সম্ভাবনা উড়িয়ে দিয়ে নয়, ‘আমরা ওয়ানডে এবং টেস্টের জন্য পৃথক অধিনায়কের কথা চিন্তা করছি। আগামী মঙ্গলবারের বোর্ড সভায় এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে। সেখানে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের পারফরম্যান্স মূল্যায়নের পাশাপাশি নেতৃত্বের বিষয়টিও আসবে।’
আসলে সেই আলোচনায় কি মুশফিককে টেস্ট এবং মাশরাফিকে ওয়ানডে অধিনায়ক করার প্রস্তাবের পক্ষেই ভোটাভুটি হবে? এবারও সরাসরি কোনো জবাব নেই নাজমুলের মুখে, ‘মাশরাফি ছাড়াও তো অপশন আছে আমাদের। তামিম আছে, সাকিব আছে। ওরা সবাই অধিনায়ক হতে পারে। এখানে আমাদের কোনো বিশেষ পছন্দ নেই। আমরা অবশ্যই এটা নিয়ে বোর্ড সভায় আলোচনা করব এবং সবার কথা শুনব।’ যদিও মুশফিকরা ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জে থাকাকালীনই বোর্ড সভায় মাশরাফিকে ওয়ানডে অধিনায়ক করার প্রশ্নে একপ্রস্থ ভোটাভুটি হয়ে গেছে। ভোটাভুটির প্রসঙ্গে গেলেন না, তবে সংবাদমাধ্যমের ক্রমাগত প্রশ্নের মুখে একপর্যায়ে নাজমুল স্বীকারই করে ফেললেন যে, ‘টেস্ট আর ওয়ানডে যেহেতু আমরা ভাগ করে ফেলছি, তাহলে একটার নেতৃত্ব তো ওর (মাশরাফি) হাতে ছেড়ে দিতেই হবে।’ তবে দুই অধিনায়কের যুগে ঢুকে পড়ার আগে বিসিবি পরিচালকদের ‘সবুজ সংকেত’ও সভাপতি নিয়ে নিতে চান বলে কালকের ঘোষণাকে ঠিক আনুষ্ঠানিক বলা যাচ্ছে না।
অনানুষ্ঠানিক হলেও মাশরাফিকে ঘিরে বিসিবির চিন্তার পরিধিও জানা গেছে কাল। তাঁকে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের জন্য অধিনায়ক করা হচ্ছে, তবে ২০১৫ বিশ্বকাপের জন্য এখনই নয়। ঘন ঘন ইনজুরিতে পড়াই এ ক্ষেত্রে মাশরাফির বিপক্ষে যাচ্ছে বলেও জানিয়েছেন নাজমুল, ‘বিশ্বকাপে কে অধিনায়ক, সে সিদ্ধান্ত আমরা এখনই নিচ্ছি না। কারণ মাশরাফি আমাদের অত্যন্ত প্রিয় খেলোয়াড়, কিন্তু ও যেকোনো সময় ইনজুরিতে পড়ে যেতে পারে। স্বাভাবিকভাবেই ওকে নিয়ে দীর্ঘমেয়াদি চিন্তা করা কঠিন। এখন এশিয়ান গেমসে যাচ্ছে। জিম্বাবুয়ে সিরিজেও থাকবে। এই সিরিজটা দেখি। এখনই চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত নিতে চাই না।’
একটা ব্যাপার অবশ্য চূড়ান্ত হয়েই গেল। আর সেটা মুশফিকের শুধুই টেস্ট অধিনায়ক হয়ে যাওয়া। এমন খবর শোনার জন্য বিয়ের দিনটা আদর্শ মোটেও নয়! অবশ্য ওয়েস্ট ইন্ডিজ থেকে দেশে ফিরে ‘বোর্ডের সিদ্ধান্ত’ মেনে নেওয়ার ব্যাপারে যে আনুগত্য দেখিয়েছেন, তাতে গতকালের অনানুষ্ঠানিক ঘোষণায় মুশফিকুর রহিমের বিয়ের আনন্দে ভাটা পড়ার কথাও নয়

 

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ
অক্টোবর ২০১৮
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« সেপ্টেম্বর    
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া