১৬ই জুলাই, ২০১৯ ইং | ১লা শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

adv

ডাকসু নির্বাচন – ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের নেতা নূর ভিপি, ছাত্রলীগের রাব্বানী জিএস নির্বাচিত

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) ঘটনাবহুল নির্বাচনে ছাত্রলীগের প্রার্থীকে হারিয়ে ভাইস প্রেসিডেন্ট (ভিপি) নির্বাচিত হয়েছেন সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের নেতা নুরুল হক নূর। তবে জিএসসহ ২৩টি পদে নির্বাচিত হয়েছেন ক্ষমতাসীন দলের ছাত্রসংগঠনের প্রার্থীরা।

ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী হয়েছেন জিএস। আর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসাইন হয়েছেন এজিএস। ছাত্রলীগের বাইরে একমাত্র সমাজসেবা সম্পাদক পদে নির্বাচিত হন সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের প্রার্থী আখতার হোসেন।

সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে তিনটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও ডাকসুর সভাপতি আখতারুজ্জামান এই ফলাফল ঘোষণা করেন।

এই ফলাফলের প্রতিক্রিয়ায় বিক্ষোভ করেছে ছাত্রলীগ। তারা সিনেট ভবনে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আখতারুজ্জামানকে অবরুদ্ধ করে রাখে। ঘণ্টাখানেক অবরুদ্ধ থাকার পর বাসায় ফেরেন ভিসি।

এদিকে ডাকসুর ভিপি হিসেবে নুরুল হক নূরকে ছাত্রলীগ মানবে না বলে জানিয়ে দিয়েছেন সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীও। তারা ভিপি নুরুল হক নূরকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কারের দাবি তুলেছেন।

ঘোষিত ফলাফল অনুসারে ২৫ হাজারের কিছু বেশি ভোট প্রয়োগ হয়েছে। যা মোট ভোটারের ৫৯ শতাংশ। এই নির্বাচনে মোট ভোটারের সংখ্যা ছিল ৪৩ হাজার ২৫৫ জন।

ভিপি পদে নুরুল হক পান ১১ হাজার ৬২ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন পেয়েছেন নয় হাজার ১২৯ ভোট।

জিএস পদে ছাত্রলীগের রাব্বানী ১০ হাজার ৪৮৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের রাশেদ খান পেয়েছেন ছয় হাজার ৬৩ ভোট।

এজিএস পদে জয়ী হয়েছেন ছাত্রলীগের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন ১৫ হাজার ৩০১ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের ফারুক হোসেন পেয়েছেন পাঁচ হাজার ৮৯৬ ভোট।

ছাত্রলীগের বিজয়ী অন্যরা হলেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক- সাদ বিন কাদের; বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক- আরিফ ইবনে আলী; কমনরুম ও ক্যাফেটেরিয়া সম্পাদক- বিএম লিপি আক্তার; আন্তর্জাতিক সম্পাদক- শাহরিমা তানজিনা অর্নি; সাহিত্য সম্পাদক- মাজহারুল কবির শয়ন; সাংস্কৃতিক সম্পাদক- শামস ই নোমান; ক্রীড়া সম্পাদক- শাকিল আহমেদ তানভীর; ছাত্র পরিবহন সম্পাদক- রাকিব হাওলাদার।

সদস্য পদে নির্বাচিতরা হলেন: চিবল সাংমা, নজরুল ইসলাম, রাকিবুল হাসান, রাকিবুল ইসলাম ঐতিহ্য, তানভীর হাসান সৈকত, রাইসা নাসের, সাবরিনা ইতি, ইশাত কাশফিয়া ইরা, নিপু ইসলাম তন্বী, হাইদার মোহাম্মদ জিতু, তিলোত্তমা শিকদার, জুলফিকার আলম রাসেল ও মাহমুদুল হাসান।

২৮ বছরেরও বেশি সময় পর গতকাল অনুষ্ঠিত হয় ডাকসু নির্বাচন। শুরু থেকেই নানা অনিয়ম ও কারচুপির অভিযোগ করতে থাকে বিরোধী ছাত্র সংগঠনগুলো। একমাত্র ছাত্রলীগ ছাড়া প্রায় সব প্যানেলই ঘোষণা দিয়ে এই নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করে। আজ থেকে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জনেরও ডাক দিয়েছে ছাত্রসংগঠনগুলো।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ
জুলাই ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« জুন    
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া