১৯শে এপ্রিল, ২০১৯ ইং | ৬ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

adv

ঘুরে দাঁড়াতে তরুন নেতাকর্মীদের সুযোগ দিয়ে দলের পুর্নগঠন করবে বিএনপি

নিজস্ব প্রতিবেদক : আবারো ঘুরে দাঁড়াতে তরুন নেতাকর্মীদের সুযোগ দিয়ে দলের পুর্নগঠন করবে বিএনপি। শুক্রবার বিকেলে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল(বিএনপি)আয়োজিত দলটির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান সাবেক রাষ্ট্রপতি শহীদ জিয়াউর রহমানের ৮৩তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় নেতাকর্মীরা বলেন নির্যাতিত নেতাকর্মীদের পুর্নবাসন, তুলনামূলক পরিক্ষিতদের এনে দলকে পুর্নগঠন করা হবে।

সভাপতির বক্তব্যে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচন একটি কাজে দিয়েছে আওয়ামী লীগ চিরদিনের জন্য জনগনের মন থেকে দূরে গেছে।পরাজয় আমাদের হয়নি পরাজয় হয়েছে আওয়ামী লীগের,নৈতিক ভাবে তাদের পরাজয় হয়েছে।আওয়ামী লীগ সেই দল যারা শুধু ক্ষমতায় থাকতে চায় ছাড়তে চায় না।

তিনি বলেন,’পরাজয় মনে করলেই পরাজয়। আমাদের ঘুরে দাড়াতে হবে। সমগ্র বাংলাদেশের মানুষকে একত্রিত হয়ে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে। আমাদের ভাইদেরকে মুক্ত করতে হবে। গণতন্ত্রকে মুক্ত করতে হবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড. মোশাররফ হোসেন বলেন, আমাদের ঘুরে দাঁড়াতে হলে আমাদের নির্যাতিত নেতাকর্মীদের পুর্নবাসন করেতে হবে।তুলনা মূলক পরিক্ষিত তাদের ক্ষমতায় আনতে হবে। তাছাড়া আমরা যারা ব্যার্থ হয়েছি তাদের জায়গা ছেড়ে দিতে হবে।

তিনি বলেন, ৩০ ডিসেম্বর আমরা পরাজিত হয়নি। জনগণের মাঝে আমরা নৈতিকভাবে বিজয়ী হয়েছি। বর্তমান সরকার জনগণের কাছে নৈতিকভাবে পরাজিত হয়েছে।
ব্যারিস্টার মওদুদ বলেন, ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনের পরিবেশ দেখে আমরা অভাক হয়েছি,নির্ভাক হয়েছি। আমরা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছিলাম দুটি কারণে, নির্বাচনে গেলে অন্তত আমাদের হামলা মামলায় নির্যাতিত নেতাকর্মীরা বের হয়ে আসতে পারে এবং নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি হতে পারে এই ভেবে। কিন্তু সরকার তার কিথা রাখেনি। এখনো গ্রেফতার চলছে।

তিনি বলেন, আমরা ভেবে ছিলাম দলীয় সরকারে অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব সরকার তা প্রমান করবে কিন্তু তা করেনি বরং নির্বাচনের আগের দিন রাতে ৪০ পারসেন্ট ভোট বাক্সে ভরার নির্দেশ দিয়েছে সরকার।
তিনি আরো বলেন, এই সময়ে দলের করনীয় বিষয় হলো, সারা দেশে আমাদের নেতাকর্মী যারা গ্রেফতার হয়েছে তাদের চারিয়ে আনার ব্যবস্থা করা। নির্যাতিত পরিবারের পাশে দাঁড়ানো এবং তাদের পুর্নভাষনের ব্যবস্থা করা। এছাড়া দলের জন্য যারা নিবেদত প্রান তাদের সুযোগ করে দেওয়া।

অনুষ্ঠানে উপস্থিতি কম থাকায় দলের ভাইস চেয়ারম্যান শাহজাহান ওমর বীর উত্তম বলেন, কিছুদিন আগে আমাদের এক সেট ব্যাক হয়ে গেছে। এতে হতাশার কিছু নেই। আমরা আবার ঘুরে দাঁড়াবো।
তিনি বলেন, জিয়াউর রহমান হচ্ছেন আমাদের পুঁজি। তার জীবনীকে সারা দেশে আজকে কেনো আমরা ছড়িয়ে দিতে পারি না? কিছু মনে করবেন না। যারা দলের নেতৃত্বে আছেন তাদের আরো একটিভ হতে হবে। ব্যর্থতার বিষয়ে আরো আলোচনা করতে হবে। আলোচনার মাধ্যমে দায়িত্ব পালন করতে হবে।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলামের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন,চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবুল খায়ের ভূইয়া,আতাউর রহমান ঢালী,যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল,নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহাম্মাদ রহমাতুল্লাহ প্রমুখ।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ
এপ্রিল ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« মার্চ    
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া