২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৮ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

adv

‘ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান-মেম্বাররা কর দিচ্ছেন কিনা খতিয়ে দেখা হবে’

ডেস্ক রিপাের্ট : কর ফাঁকিবাজ বিত্তশালীদের চিহ্নিত করতে কমিশনারেটগুলোকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান-মেম্বাররা কর দিচ্ছে কিনা সেটাও খতিয়ে দেখা হবে।

বুধবার ঢাকার শান্তিনগরে বিসিএস (কর) একাডেমি ভবনে ৩৬তম নিয়োগপ্রাপ্ত সহকারী কর কমিশনারদের ছয় মাসব্যাপী বুনিয়াদি প্রশিক্ষণের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘আমাদের দেশে যত বড় বড় ব্যবসায়ী রয়েছে, তাদের করের আওতায় আনতে অফিসারদের নির্দেশনা দিয়েছি। তাদের কমিশনাররা চিহ্নিত করছেন। বর্তমানে আমাদের যে ট্যাক্সেসেশন জোনগুলো রয়েছে, সেগুলোতে গুরুত্বপূর্ণ করদাতাদের ফাইলগুলো চিহ্নিত করা হয়েছে।’

পাশাপাশি শহরের কর ফাঁকিবাজ বাড়িওয়ালা ও ফ্ল্যাট মালিকদের করের আওতায় এনে করের পরিধি বাড়াতে হবে বলেও জানান এনবিআর চেয়ারম্যান।

তিনি বলেন, গ্রামে কর প্রদানে সক্ষম অনেক ব্যক্তি রয়েছে, যারা করের আওতার বাইরে রয়েছে। তাদের করের আওতায় নিয়ে আসতে হবে। এদের করের আওতায় আনতে আমরা সেখানে দক্ষ কর্মকর্তা নিয়োগ দিয়েছি।

ইউপি চেয়ারম্যান নির্বাচনের প্রচারণায় কোটি টাকার ব্যয় করে এমন দাবি করে মোশাররফ হোসেন বলেন, এরা নিয়ম অনুসারে কর দিচ্ছে কিনা সেটা আমাদের দেখতে হবে। অনেক ক্ষেত্রে দেখা গেছে, চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ইটিআইএন নির্বাচন অফিসে জমা দিয়েছেন, কিন্তু তাদের কোনো রিটার্নপত্র জমা দেন না।

তিনি বলেন, সেই ক্ষেত্রে তাদের কর প্রদান বিষয়টি অস্পষ্ট রয়ে যায়। তাই সেসব চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীদের করের বিষয়টিও খতিয়ে দেখা হবে। একইসঙ্গে গ্রামের বর্তমান চেয়ারম্যান-মেম্বাররা কর দিচ্ছেন কিনা সেটা খতিয়ে দেখার ওপরে জোর দেন এনবিআর চেয়ারম্যান।

নিয়োগপ্রাপ্ত নতুন সহকারী কর কমিশনারদের উদ্দেশে চেয়ারম্যান বলেন, কর কর্মকর্তা হওয়ার জন্য কয়েক লাখ মেধাবী পরীক্ষা দিয়েছে, কিন্তু সবাই নিয়োগ পায়নি। তাই নিয়োগপ্রাপ্তরা সাধারণ লোকের মতো নয়। তাদের ওপর রাষ্ট্রীয় গুরুদায়িত্ব রয়েছে। মেধা দিয়ে সেই কাজ করতে হবে।

বিসিএস (কর) একাডেমির মহাপরিচালক বজলুর কবির ভূঞার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন- এনবিআরের সদস্য (কর প্রশাসন ও মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা) জিয়া উদ্দিন মাহমুদ, বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ও কর-৮ এর কমিশনার সেলিম আফজাল।

প্রশিক্ষণে ৪২ জন বিসিএস ক্যাডার অংশ নিয়েছেন। এর মধ্যে ৩৬তম বিসিএসের ক্যাডার ৩৯ জন আর বাকি তিনজন ৩৪তম বিসিএস ক্যাডার।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ
সেপ্টেম্বর ২০১৮
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« আগষ্ট    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া