২৩শে অক্টোবর, ২০১৮ ইং | ৮ই কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

adv

প্রথিতযশা সাংবাদিক গোলাম সারওয়ারকে সহকর্মীদের বিদায়

ডেস্ক রিপাের্ট : জাতীয় প্রেসক্লাবে জোহরের নামাজের পর প্রথিতযশা সাংবাদিক ও দৈনিক সমকাল সম্পাদক গোলাম সারওয়ারের চতুর্থ জানাজা সম্পন্ন হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুর সোয়া ১টার দিকে মরদেহ প্রেসক্লাবে নিয়ে যাওয়া হলে তার পাঁচ দশকের এই আড্ডাস্থলে সহকর্মীরা তাকে শেষ বিদায় জানান।

এ সময় গোলাম সারওয়ারের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে বক্তব্য রাখেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, প্রেসক্লাবের সভাপতি শফিকুর রহমান, সিনিয়র সহসভাপতি ও দৈনিক যুগান্তরের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক সাইফুল আলম, সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন, খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম, তথ্যপ্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম, বিএফইউজের সভাপতি মোল্লা জালাল, সম্পাদক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মাহফুজ আনাম, সমকালের প্রকাশক একে আজাদ ও সাংবাদিক নেতা মনজুরুল আহসান বুলবুল প্রমুখ।

প্রয়াত গোলাম সারওয়ারের পরিবারের পক্ষ থেকে বাবার জন্য দোয়া চান বড় ছেলে গোলাম শাহরিয়ার রঞ্জু।

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেন, শ্রদ্ধাভাজন প্রখ্যাত সাংবাদিক গোলাম সারওয়ারের মৃত্যুতে আমরা দুঃখিত ও শোকাহত। দীর্ঘদিন তার সঙ্গে কাজ করেছি। তিনি একাধারে নির্ভীক সাংবাদিক। তাকে অনুসরণ করে চলমান পরিস্থিতিতে আমরা এগিয়ে যাব।

বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী। তিনি বলেন, পেশাগত ও ব্যক্তিগত দিক থেকে তিনি একজন অনন্য মানুষ ছিলেন। আমরা তাকে বড় ভাই, অভিভাবক হিসেবে পেয়েছি। তার রুহের মাগফিরাত কামনা করছি।

প্রেসক্লাবের সভাপতি শফিকুর রহমান বলেন, গোলাম সারওয়ার ভাই আমাদের মাঝ থেকে শারীরিকভাবে চলে গেছেন। আমরা তার জন্য দোয়া কামনার মধ্য দিতে তাকে স্মরণ করছি।

প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহসভাপতি সাইফুল আলম বলেন, গোলাম সারওয়ার জাতীয় প্রেসক্লাবের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িত ছিলেন। তিনি কেবল স্থায়ী সদস্যই ছিলেন না, তিনি ছিলেন প্রেসক্লাবের প্রতিদিনের সদস্য। তিনি এমন এক ব্যক্তি যাকে প্রেসক্লাব থেকে আলাদা করে ভাবাই যায় না। প্রেসক্লাবের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডসহ সবকিছুর সঙ্গে তিনি জড়িয়ে আছেন।

সাইফুল আলম বলেন, তাকে অভিভাবক, নেতা ও বন্ধু হিসেবে পেয়েছি। তার চলে যাওয়ায় আমরা দারুণভাবে শোকাহত। তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি আমরা সমবেদনা জানাই।

প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন বলেন, গোলাম সারওয়ারের মৃত্যুতে পুরো সাংবাদিক সমাজ আজ শোকাহত। বিপদে-আপদে তাকে পাশে পেয়েছি। তিনি সবসময় পরামর্শ দিয়ে আমাকে সহযোগিতা করেছেন। প্রেসক্লাবে না পেলে তার অফিসে গিয়েও পরামর্শ নিয়েছি। দীর্ঘদিন তার অভাব অনুভব করব।

গোলাম সারওয়ারের অমায়িক ব্যবহার সাংবাদিকতাকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছে বলে মন্তব্য করেন তথ্যপ্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম। তিনি বলেন, গোলাম সারওয়ারের প্রতি আমার বিনম্র শ্রদ্ধা। তার সঙ্গে যখন শেষ দেখা হয়েছিল, তখন তার সেই হাস্যোজ্জ্বল মুখের কথা এখনও মনে পড়ে।

তারানা হালিম বলেন, মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের একজন হিসেবে আমরা তাকে চিরকাল স্মরণে রাখব।

সম্পাদক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ও ইংরেজি দৈনিক ডেইলি স্টারের সম্পাদক মাহফুজ আনাম বলেন, গোলাম সারওয়ারের চলে যাওয়া মানেই এক বিরাট শূন্যতা। পেশাগত দিক থেকে তার ভূমিকা অনন্য। সম্পাদক পরিষদ গঠনের সময় আমরা নানাভাবে তার সহযোগিতা পেয়েছি।

মাহফুজ আনাম বলেন, গোলাম সারওয়ার ছিলেন বিনয়ী মানুষ। তিনি পেছন থেকে কাজ করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু আমরা তাকে অনেকটা জোর করেই সভাপতির দায়িত্ব দিয়েছিলাম। তার নেতৃত্বে পরিষদটি সম্পূর্ণতা লাভ করেছে।

জানাজার পর পরই ঢাকা জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এ বরেণ্য সাংবাদিককে গার্ড অব অনার দেয়া হয়। এ ছাড়া প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ তাকে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন প্রেস সচিব এহসানুল করিম ও উপ-প্রেস সচিব আশরাফুল আলম খোকন।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ
অক্টোবর ২০১৮
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« সেপ্টেম্বর    
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া