১৯শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

adv

দ্বিগুণ বেতন বাড়ল শিল্প শ্রমিকদের

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাষ্ট্রায়াত্ত্ব শিল্প কারখানার শ্রমিকদের বেতন বাড়ল শতভাগ। আগের তুলনায় দ্বিগুণ বেতন পাবেন তারা। শুধু তাই নয়, বেতন বৃদ্ধি কার্যকর ধরা হয়েছে আরও তিন বছর আগে থেকে। ফলে তারা তিন বছরের বাড়তি মূল বেতনের টাকাও পাবেন।

আর বেতনের সঙ্গে যে ভাতা দেয়া হয়, সেটি কার্যকর ধরা হয়েছে দুই বছর আগে থেকে। অর্থাৎ দুই বছরে ভাতার বর্ধিত হারের টাকাটাও একবারে পেয়ে যাচ্ছে তারা।

পোশাক শ্রমিকদের মজুরি বৃ্দ্ধিতে ওয়েজবোর্ড গঠন করার মধ্যে রাষ্ট্রায়াত্ত্ব শিল্প শ্রমিকদের বেতন বৃদ্ধির এই সিদ্ধান্ত হলো।

‘জাতীয় মজুরি ও উৎপাদনশীলতা কমিশন, ২০১৫’ এর সুপারিশে সোমবার এই বেতন বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত অনুমোদন করেছে মন্ত্রিসভা। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম এই তথ্য জানান।

ন্যূনতম মজুরি ৮,৩০০ –

নতুন মজুরি কাঠামোয় ন্যূনতম মজুরি ধরা হয়েছে আট হাজার ৩০০ টাকা ও সর্বোচ্চ ধরা হয়েছে ১১ হাজার ২০০ টাকা।

সচিব জানান, নতুন মজুরি ২০১৫ সালের ১ জুলাই ও ভাতা ২০১৬ সালের ১ জুলাই থেকে কার্যকর হবে। এই কাঠামোতে মোট ১৬টি গ্রেড রয়েছে।

এর মধ্যে ১ নং গ্রেডে চার হাজার ১৫০ থেকে বাড়িয়ে আট হাজার ৩০০, ২ নং গ্রেডে চার হাজার ২০০ থেকে আট হাজার ৪০০, ৩ নং গ্রেডে চার হাজার ২৭৫ থেকে আট হাজার ৫৫০, ৪ নং গ্রেডে চার হাজার ৩৫০ থেকে আট হাজার ৭০০, ৫ নং গ্রেডে চার হাজার ৪২৫ থেক আট হাজার ৮৫০, ৬ নং গ্রেডে চার হাজার ৫০০ থেকে নয় হাজার, ৭ নং গ্রেডে চার হাজার ৫৭৫ থেকে নয় হাজার হাজার ১৫০, ৮ নং গ্রেডে চার হাজার ৬৫০ থেকে নয় হাজার ৩০০ হাজার টাকা করা হয়েছে মূল বেতন।

একইভাবে ৯ নং গ্রেডে চার হাজার ৭২৫ থেকে নয় হাজার ৪৫০, ১০ নং গ্রেডে চার হাজার ৮০০ থেকে নয় হাজার ৬০০, ১১ নং গ্রেডে চার হাজার ৮৭৫ থেকে নয় হাজার ৭৫০, ১২ নং গ্রেডে চার হাজার ৯৫০ থেকে নয় হাজার ৯০০, ১৩ নং গ্রেডে পাঁচ হাজার ২৫ থেকে ১০ হাজার ৫০, ১৪ নং গেডে পাঁচ হাজার ১০০ থেকে ১০ হাজার ২০০, ১৫ নং গ্রেডে পাঁচ হাজার ১৭৫ থেকে ১০ হাজার ৩৫০ এবং ১৬ নং গ্রেডে পাঁচ হাজার ৬০০ থেকে ১১ হাজার ২০০ টাকা করা হয়েছে।

অন্যান্য ভাতা –

অনুমোদিত মজুরি কাঠামোর ৫০ ভাগ হারে বাড়িভাড়া ভাতা, চিকিৎসা ভাতা মাসে দেড় হাজার, যাতায়াত ভাতা ২০০ ও ধোলাই ভাতা ১০০ টাকা যোগ হবে মূল বেতনে।

এর বাইরে উৎসব ভাতা দুই মাসের মূল বেতনের সমপরিমাণ নির্ধারণ করা হয়েছে বলে জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব।

সর্বশেষ ‘জাতীয় মজুরি ও উৎপাদনশীলতা কমিশন ২০১০’-এ রাষ্ট্রায়াত্ত্ব শিল্পের শ্রমিকদের মজুরি প্রায় ৭০ শতাংশ বাড়িয়েছিল।

ওই সময় সর্বোচ্চ মজুরি ৫ হাজার ৬০০ টাকা এবং সর্বনিম্ন ৪ হাজার ১৫০ টাকা নির্ধারণ করে মজুরি কাঠামো ঠিক করা হয়েছিল।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ
নভেম্বর ২০১৮
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« অক্টোবর    
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া