২০শে মে, ২০২০ ইং | ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

adv

ছোট মেয়ে মুখ ফিরিয়ে নেয়ায় মদ ছেড়ে দিয়েছিলেন মহেশ ভাট

বিনােদন ডেস্ক : একসময় অ্যালকোহলিক ছিলেন মহেশ ভাট। মদ্যপানের পাশাপাশি ধূমপানের অভ্যাসও ছিল। তবে অভিনেত্রী স্ত্রী সোনি রাজদানের সঙ্গে প্রথমসন্তানের জন্মের পরই নাকি সব ছেড়ে দিয়েছিলেন মহেশ ভাট।

একটি টিভি শো-তে হেশ ভাটের সামনেই একথা সবাইকে বলে দেন স্ত্রী সোনি রাজদান। সম্প্রতি, সোশ্যাল মিডিয়ায় নতুন করে উঠে সেই টিভি শোয়ের ভিডিওটি।

যেখানে মহেশ ভাট নিজেই স্বীকার করে নিয়েছেন, সোনি রাজদানের সঙ্গে প্রথম কন্যা সন্তানের জন্মের পরই তিনি সব ছেড়ে দিয়েছিলেন। কারণটা অবশ্যই মেয়ে শাহিন ভাট (আলিয়ার বোন)।

টিভি শোয়ের সঞ্চালক সুরেশ ওবেরয়ের প্রশ্নের জবাবে মহেশ ভাট বলেন, যখন ওর (মেয়ে শাহিন ভাটের দিকে দেখিয়ে) জন্ম হল, তখন সোনি আমায় বললো, কিছুদিনের জন্য তো মদ্যপান ছাড়ো। আমি একাই কাটাচ্ছি। তবে তখনও আমি ছাড়ি নি, তবে ছোট্ট শাহিনকে যখন আমি কোলে নি, তখন মদের গন্ধে ও আমার দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছিল। তখনই আমি ঠিক করেছিলাম, আমি এক বিন্দু মদ্যপান করবো না। তখন থেকে আজ শাহিন ১৩ বছরের আমি মদ্যপান করি নি। ও-ই আমায় বাঁচিয়েছিল।

ওইদিন ১৩ বছরের বোন শাহিন ভাটের সঙ্গে শোয়ে হাজির ছিলেন ৮ বছরের আলিয়া ভাট। মহেশ ভাটের প্রথম পক্ষের সন্তান পূজা ভাটও ওই শোয়ে উপস্থিত ছিলেন। তিনিই দুই বোন শাহিন ও আলিয়ার সঙ্গে সকলের আলাপ করিয়ে দেন।

শাহিন বলেন, তিনি বড় হয়ে লেখিকা হতে চান। আর ৮ বছরের আলিয়া চেয়েছিলেন অভিনেত্রী হতে। বর্তমানে শাহিন ভাট একজন লেখিকা আর আলিয়া অভিনেত্রী। দুজনেই তাদের ছোটথেকে ঠিক করে নেওয়া ইচ্ছাকেই পূরণ করার জন্য সচেষ্ট হয়েছেন।

প্রসঙ্গত, খুব শীঘ্রই মহেশ ভাটের পরিচালনায় ‘সড়ক-২’-এ দেখা যাবে আলিয়া ভাট ও পূজা ভাটকে। এই ছবির মাধ্যমেই প্রথমবার বাবার পরিচালনায় কাজ করছেন আলিয়া। আর বোন পূজা ভাটের সঙ্গে প্রথমবার জুটি বেঁধেও কাজ করছেন তিনি।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ
May 2020
M T W T F S S
« Apr    
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া