১০ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং | ২৫শে কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

adv

টাইগারদের একাদশে আসতে পারে দুই পরিবর্তন

স্পাের্টস ডেস্ক : সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে রোববার (১০ নভেম্বর) ভারতের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। নাগপুরের ভিদর্ভ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন মাঠে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায়।

তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে ভারতকে হারিয়ে দিয়েছিল মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল। দ্বিতীয় ম্যাচে সিরিজে ফিরেছে ভারত। এ ম্যাচে যে জিতবে সিরিজ তার। অঘোষিত ফাইনাল। ভারতের বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টি সিরিজ জয়ের মিশনে টাইগাররা। আর এ মৌসুমে ঘরের মাঠে প্রথম টি-টোয়েন্টি সিরিজ জয়ের অপেক্ষায় ভারত।

দুই ম্যাচে বাংলাদেশের উপর অর্ডারের ব্যাটসম্যানরা দারুণ খেলছে। লিটন দাস, নঈম, সৌম্য সরকাররা প্রত্যাশা মতোই খেলছে। প্রথম ম্যাচে মুশফিকুররের ব্যাট ঝলসে উঠলেও দ্বিতীয় ম্যাচে রান পাননি তিনি। তবে ফর্মে রয়েছেন মুশফিক।

অপরদিকে ভারতের প্রধান ভরসা রোহিত ও ধবন জুটির। প্রথম ম্যাচে রান না পেলেও দ্বিতীয় ম্যাচে একাই ব্যাট হাতে ঝড় তুলেছেন অধিনায়ক। পাশাপাশি ধবনও দুটি ম্যাচে রান পেয়েছেন। ভারতকে দেখতে হবে পেস বোলিং অ্যাটাক। কারণ এই সিরিজে ভারতের পেসাররা তেমন কিছু করে দেখাতে পারেনি।

উইকেট বিবেচনায় গুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচে বাংলাদেশ একাদশে আসতে পারে দুই পরিবর্তন। দলে ঢুকতে পারেন বাঁ-হাতি স্পিনার তাইজুল ইসলাম। তাকে দলে জায়গা করে দিতে অভিজ্ঞ পেসার শফিউল ইসলামকে বেঞ্চে বসতে হতে পারে।

প্রথম দুই ম্যাচে বেশ খরুচে ছিলেন শফিউল। প্রথম ম্যাচে ৪ ওভার বল করে ৩৬ রান দিয়ে তিনি নেন দুই উইকেট। তবে ওই ম্যাচে রোহিত শর্মা এবং ঋষভ পান্তের গুরুত্বপূর্ণ উইকেট তুলে নেন তিনি। দ্বিতীয় ম্যাচেও খরুচে ছিলেন এই পেসার।

অন্যদিকে মুস্তাফিজুর রহমানও দুই ম্যাচে খরুচে বোলিং করেছেন। প্রথম ম্যাচে ২ ওভারে ১৫ এবং দ্বিতীয় ম্যাচে ৩.৪ ওভারে খরচা করেছেন ৩৫ রান। উইকেটও পাননি তিনি। তবে কোচের আস্থা আছে বাঁ-হাতি পেসারে। নাগপুরের স্লো উইকেটে মুস্তাফিজ ম্যাচ বদলে দেওয়ার ক্ষমতা রাখেন।

ম্যাচ পূববর্তী সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ কোচ তেমনই ইঙ্গিত দিয়েছেন। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে কোচ দলের সবচেয়ে অভিজ্ঞ পেসার মনে করেন মুস্তাফিজকে। বিশ্বের সেরা ব্যাটসম্যানদের বিপক্ষে তার বল করার অভিজ্ঞতাকে গুরুত্ব দিচ্ছেন তিনি।

দলে দ্বিতীয় পরিবর্তন হতে পারে মোসাদ্দেক হোসেন। তার জায়গায় মোহাম্মদ মিঠুনকে খেলানো হতে পারে। মোসাদ্দেক দ্বিতীয় ম্যাচে স্লগ ওভারে ব্যাটিং করে দলের চাহিদা অনুযায়ী রান তুলতে পারেননি। টপ অর্ডার থেকে মিডল অর্ডারে ব্যাট করতে পারা মিঠুন তাই দলে ঢুকতে পারেন।

নাগপুরের উইকেট বিবেচনায় টস জয়ী দল শুরুতে ব্যাটিং করলে তাদের জয়ের সম্ভাবনা বেশি। এর আগের ১১ ম্যাচে শুরুতে ব্যাট করা দল আটটিতে জয় তুলে নিয়েছে। বাংলাদেশ দলের হয়ে দুই ম্যাচেই স্ট্রাইক রেট ভালো রেখে ব্যাটিং করেছেন সৌম্য সরকার।

অন্যদিকে নাঈম শেখ ভালো ব্যাটিং করলেও তার স্ট্রাইক রেট (১০৫.০৮) কম। অনেকের তাই প্রশ্ন সৌম্য সরকার কেন পাওয়ার প্লেতে ব্যাটিং করছেন না।

বাংলাদেশের সম্ভব্য একাদশ

লিটন দাস, নাঈম শেখ, সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদুল্লাহ, মোহাম্মদ মিঠুন, আফিফ হোসেন, আমিনুল ইসলাম, মুস্তাফিজুর রহমান, আল আমিন হোসেন, তাইজুল ইসলাম।

ভারতের সম্ভব্য একাদশ

রোহিত শর্মা, শেখর ধাওয়ান, কেএল রাহুল, শ্রেয়াস আয়ার, ঋষভ পান্ত, শিভাম দুবে, ক্রুনাল পান্ডিয়া, ওয়াশিংটন সুন্দর, দিপক চাহার, শার্দুল ঠাকুর, যুজবেন্দ্র চাহাল।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ
নভেম্বর ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« অক্টোবর    
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০  


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া