২২শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং | ৬ই কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

adv

গৃহবধূকে আরতি রাণীকে ধর্ষণের পর হত্যা: জয়পুরহাটে সাতজনের মৃত্যুদণ্ড

ডেস্ক রিপাের্ট : জয়পুরহাটের আক্কেলপুর উপজেলার আরতি রাণী নামে এক গৃহবধূকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগে করা মামলায় সাতজনের ফাঁসির আদেশ দিয়েছে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল। এছাড়া দণ্ডপ্রাপ্তদের মধ্যে দুইজনের পাঁচ লাখ টাকা করে অর্থদণ্ড এবং পাঁচজনের এক লাখ টাকা করে অর্থদণ্ড করা হয়।

মঙ্গলবার দুপুরে ট্রাইব্যুনালের বিচারক ড এ বি এম মাহমুদুল হক এই রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন আক্কেলপুর উপজেলার মারমা গ্রামের সোহেল তালুকদার, দেওড়া সোনারপাড়া গ্রামের আফজাল হোসেন, দেওড়া গুচ্ছগ্রামের রাহিন, দেওড়া সাখিদার পাড়ার ফেরদৌস আলী, দেওড়া সোনারপাড়ার মজিবর রহমান, জগতি গ্রামের রুহুল আমীন এবং দেওড়া গুচ্ছগ্রামের আজিজার রহমান।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১৬ সালের ৮ অক্টোবর রাতে দেওড়া আশ্রয়ন কেন্দ্রের উজ্জল মহন্তের স্ত্রী আরতী রাণীকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে আসামিরা গণধর্ষণের পর হত্যা করে। এ ঘটনায় ১০ অক্টোবর আরতীর স্বামী উজ্জল মহন্ত বাদী হয়ে সাতজনকে আসামি করে আক্কেলপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন।

মামলায় দীর্ঘ শুনানির পর জয়পুরহাট নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক সাত আসামিরই মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেন। এছাড়া দণ্ড পাওয়া সোহেল ও ফেরদৌসের পাঁচ লাখ টাকা করে অর্থদণ্ড এবং বাকি দ-প্রাপ্ত পাঁচজনের এক লাখ টাকা করে অর্থদণ্ডের আদেশ দেন।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের পিপি আইনজীবী ফিরোজা চৌধুরী। অন্যদিকে বাদীপক্ষে ছিলেন আইনজীবী মোস্তাফিজুর রহমান ও রফিকুল ইসলামসহ পাঁচজন।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ
অক্টোবর ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« সেপ্টেম্বর    
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া