১০ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং | ২৫শে আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

adv

কোচের বেতন দেয়ার ক্ষেত্রে ভারত শীর্ষে, সাত নম্বরে বাংলাদেশ

স্পাের্টস ডেস্ক : ক্রিকেটে কোচের ভূমিকা বিশাল। ক্রিকেটারদের টেকনিক্যাল দুর্বলতা খুঁজে বের করা, তা সারানোর পাশাপাশি বিপক্ষের জন্য স্ট্র্যাটেজি তৈরি করা তার দায়িত্বের মধ্যে পড়ে। অধিনায়কের সঙ্গে কোচেরও ভূমিকা থাকে প্রথম এগারো বেছে নেওয়ার ক্ষেত্রে। কাজ যতোই একই রকমের হোক, কোচদের চুক্তিতে কিন্তু দেখা যায় পার্থক্য। বিভিন্ন দেশে কোচদের পারিশ্রমিকেও পার্থক্য বিশাল। ক্রিকেট বিশ্বে ধনী বোর্ডের তালিকার ভারত ও ইংল্যান্ডের পরে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের নাম থাকলেও খরচের তালিকায় তাদের অবস্থান সাত নম্বরে। দলের মুল কোচের বেতন তালিকা দেখে তা-ই মনে হবে।
ভারত:
ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই) আর্থিক ভাবে সবচেয়ে স্বচ্ছল। ফলে, টিম ইন্ডিয়ার প্রধান কোচ হিসেবে রবি শাস্ত্রী যে ক্রিকেটদুনিয়ায় সবচেয়ে বেশি অর্থ পাবেন, তাতে বিস্ময়ের কিছু নেই। ৫৭ বছর বয়সি বছরে ১১ কোটি ৫৪ লাখ টাকা পান।
অস্ট্রেলিয়া :
টেস্ট ক্রিকেটে সফলতম ওপেনারদের অন্যতম হিসেবে ৪৫.২৭ গড়ে কেরিয়ার শেষ করেছিলেন জাস্টিন ল্যাঙ্গার। ২০১৮ সালের মে মাসে তিনি অস্ট্রেলিয়ার কোচ হন। এই মুহূর্তে বোর্ডের খবর অনুসারে বাংলাদেশি মুদ্রায় বছরে ৫ কোটি ৫৪ লাখ টাকার চুক্তি তার।

ইংল্যান্ড :
ট্রেভর বেইলিস কখনও অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় দলের হয়ে খেলতে পারেননি। কিন্তু কোচিং দুনিয়ায় তিনি বেশ জনপ্রিয়। ২০১৫ সালে ইংল্যান্ডের কোচ হন তিনি। তার কোচিংয়ে সদ্য বিশ্বকাপ জিতেছে ইংল্যান্ড। অ্যাশেজ পর্যন্ত চুক্তি ছিল তার। শোনা যাচ্ছে, চুক্তি অনুসারে বাংলাদেশি মুদ্রায় বছরে ৪ কোটি ৪৪ লাখ টাকা পেতেন তিনি।

শ্রীলঙ্কা :
২৬ টেস্ট ও ৩৫ একদিনের ম্যাচ খেলেছেন চন্দ্রিকা হাথুরাসিংহে। ২০০৫ সালে প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটকে বিদায় জানান তিনি। ২০১৪ সালে বাংলাদেশের কোচ হন হাথুরাসিংহে। ২০১৭ সালে হন শ্রীলঙ্কার কোচ। সেই সময়ে তার সঙ্গে বাংলাদেশি মুদ্রায় বছরে ৪ কোটি ৯৪ হাজার টাকার চুক্তি হয়েছিলো।

পাকিস্তান :
মিকি আর্থারের পর পাকিস্তানের কোচ হয়েছেন মিসবা উল হক। তিনি শুধু প্রধান কোচই নন, জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচকও। তিনি পাকিস্তানের সফলতম টেস্ট অধিনায়কও। তবে কোচ ও নির্বাচক, দুই দায়িত্ব পালন করতে হলেও বাড়তি অর্থ পাচ্ছেন না বলেই পাক বোর্ডের সূত্রের খবর। শোনা যাচ্ছে, বাংলাদেশি মুদ্রায় বছরে ২ কোটি ১৩ টাকার চুক্তি হয়েছে তার।
নিউজিল্যান্ড :
চার বছর মাইক হেসন দায়িত্ব সামলানোর পর নিউজিল্যান্ডের এখন কোচ গ্যারি স্টিড। এর আগে ঘরোয়া ক্রিকেটে কোচিং করিয়েছেন তিনি। তার কোচিংয়ে কিউইরা তিন ফরম্যাটেই সাফল্য পাচ্ছেন। বিশ্বকাপের ফাইনালেও উঠেছিলো নিউজিল্যান্ড। যা খবর, তাতে বাংলাদেশি মুদ্রায় বাৎসরিক ২ কোটি ৫৯ হাজার টাকা পান তিনি।

বাংলাদেশ :
বাংলাদেশের কোচ এখন রাসেল ডোমিনগো। তিনি প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট খেলেননি। তবে খুব তাড়াতাড়ি তিনি কোচিংয়ের জগতে প্রবেশ করেন। চার বছর দক্ষিণ আফ্রিকাকে কোচিং করিয়েছিলেন তিনি। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সূত্র অনুসারে, বছরে বাংলাদেশি মুদ্রায় ১ কোটি ৬৪ লাখ ৫৬ হাজার ৩২০ টাকা।

দক্ষিণ আফ্রিকা :
এক যুগেরও বেশি সময় ধরে সুনামের সঙ্গে কোচিং করাচ্ছেন ওটিস গিবসন। বিভিন্ন দেশে কোচিং করিয়েছেন তিনি। গিবসন কিছুদিন আগেও ছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার কোচ। বিশ্বকাপে ব্যর্থতার পরিপ্রেক্ষিতে ছেঁটে ফেলা হয় তাকে। তার সঙ্গে বাংলাদেশি মুদ্রায় বাৎসরিক ১ কোটি ৭৮ হাজার টাকার চুক্তি ছিলো বলে শোনা যায়।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ :
ওয়েস্ট ইন্ডিজের বর্তমান কোচ ফ্লয়েড রেইফার। ১২ বছরের আন্তর্জাতিক কেরিয়ারে তিনি ১৫ ম্যাচ খেলেছেন। ২০১৪ সালে সব ধরনের ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়েছেন তিনি। চলতি বছরের গোড়ায় রিচার্ড পাইবাসের জায়গায় কোচ হন। যা খবর তাতে বাংলাদেশি মুদ্রায় বছরে ৭৬ লাখ ৭৮ হাজার টাকা পাচ্ছেন তিনি।

জিম্বাবুয়ে :
জিম্বাবুয়ের কোচ এখন এক ভারতীয়, মুম্বইয়ের লালচাঁদ রাজপুত। শোনা যাচ্ছে, বাংলাদেশি মুদ্রায় বছরে ৪০ লাখ টাকার চুক্তি তার। ২০১৮ সালে জিম্বাবোয়ের অন্তর্বর্তীকালীন কোচ হয়েছিলেন প্রথমে। পরে সেই বছরেই পূর্ণাঙ্গ দায়িত্বে আসেন। -সূত্র আনন্দবাজার

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ
অক্টোবর ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« সেপ্টেম্বর    
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া