১২ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং | ২৮শে ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

adv

অক্ষয়ের দখলে পাঁচটি বড় উৎসব

বিনােদন ডেস্ক : বলিউডের প্রথম সারি তারকাদের মধ্যে একমাত্র অক্ষয় কুমারেরই বছরে চারটি বা এর বেশি সিনেমা মুক্তি পায়। বাকিরা এক বা দুটি নিয়ে সন্তুষ্ট থাকেন। আর ‘খিলাড়ি’-খ্যাত তারকার বক্স অফিস ভাগ্য বরাবরই সুপ্রসন্ন। বর্তমানে তার হাতে ছয়টি ছবি রয়েছে, তার মধ্যে পাঁচটি মুক্তি পাবে বড় উৎসবে।

এই উৎসবগুলো হলো চলতি বছরের দিওয়ালি, ২০২০ সালের নববর্ষ, ঈদুল ফিতর, দিওয়ালি ও বড়দিন।

তবে একেবারে ফাঁকা মাঠে গোলে দেবেন এমন নয়, অন্য তারকাদের সঙ্গেও লড়াই হবে অক্ষয়ের। দিওয়ালিতে ‘হাউসফুল ফোর’-এর সঙ্গে আসবে ভূমি পেডনেকার ও তাপসী পান্নুর ‘ষান্ড কি আঁখ’। অবশ্য দুটি ভিন্ন ঘরানার সিনেমা হওয়ায় দর্শকও আলাদা।

বড়দিনে মুক্তি পাবে সালমান খানের ‘দাবাং থ্রি’। এর এক সপ্তাহ পর নববর্ষে আসবে অক্ষয়ের ‘গুড নিউজ’। আগের বছর একইভাবে মুক্তি পেয়েছিল শাহরুখ খানের ‘জিরো’ ও রণবীর সিং-এর ‘সিম্বা’।

রোহিত শেঠির অতি প্রতীক্ষিত ‘সূর্যবংশী’ মুক্তি পাবে ২০২০ সালে ২৭ মার্চ। এটি অক্ষয়ের একমাত্র নন-ফেস্টিভ সিনেমা। অবশ্য সালমান খানের ‘ইনশাল্লাহ’র কারণে সিনেমাটি ঈদুল ফিতর থেকে পিছিয়ে যায়। এখন সেই ২২ মে’তে মুক্তি পাবে ‘লক্ষ্মী বম্ব’। কয়েক মাস পর দিওয়ালিতে কঙ্গনা রনৌতের ‘ধাকাড়’-এর সঙ্গে মুক্তি পাবে ‘পৃথ্বীরাজ’।

সবচেয়ে বড় বক্স অফিস লড়াই হবে আমির খানের সঙ্গে। আগামী বছরের বড়দিনে অক্ষয়ের ‘বচ্চন পাণ্ডে’র সঙ্গে মুক্তি পাবে মিস্টার পারফেকশনিস্টের ‘লাল সিং চাড্ডা’। আমিরের সঙ্গে আছেন কারিনা কাপুর খান। তবে বলিউডের বাণিজ্য বিশ্লেষকেরা বলছেন যে কোনো একটি ছবি প্রতিযোগিতা থেকে সরে আসবে।

এখন প্রশ্ন হতে পারে- একসঙ্গে এত সিনেমার সময় কোথায় পান অক্ষয়। টাইমস অব ইন্ডিয়াকে বেশ আগের এক সাক্ষাৎকারে অক্ষয় জানান, একাধিক সিনেমা করার একটি ফর্মুলা আছে তার। ‘রাউডি রাঠোর’-এর মতো বেশি সময় নিয়ে করা সিনেমার শিডিউল বড় জোর ৭২ দিন। মোটামুটি শিডিউল থাকে ৬০ দিন। এই হিসেবে এক বছরে ২৪০ দিনে চারটি ছবি করা কঠিন বিষয় নয়।

চারটি ছবির পাশাপাশি বিজ্ঞাপনের জন্য রাখেন ৭ দিন। তাহলে হাতে থাকে আরও ১১৮ দিন। এর মধ্যে ৫২ রবিবারে তিনি কাজ করেন না। ৪৫ দিন থাকে পারিবারিক ছুটির জন্য। এ ছাড়া প্রতি সিনেমার পর এক সপ্তাহ করে তিন দফায় ২১ দিন ছুটি কাটান।

তবে কিছু ক্ষেত্রে বাড়তি ছুটি পান অক্ষয়। নমস্তে লন্ডন, মুঝসে সাদি কারোগি ও জানোয়ারের মতো ছবির ক্ষেত্রে মাত্র ৩২ দিন করে কাজ করেছেন।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ
সেপ্টেম্বর ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« আগষ্ট    
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০  


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া