৮ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং | ২৪শে ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

adv

আহত স্মিথকে ব্যঙ্গ করায় ইংরেজ সমর্থকদের নিন্দায় সরব অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী

স্পাের্টস ডেস্ক : লর্ডস টেস্টের চতুর্থদিন ক্রিকেট টমক্কায় মুহূর্তের জন্য ফিরেছিলো ফিল হিউজেস স্মৃতি। ৯২.৪ মাইল গতিবেগে জোফ্রা আর্চারের বাউন্সার গলায় এসে লাগতেই মাটিতে কার্যত সংজ্ঞাহীন অবস্থায় লুটিয়ে পড়েছিলেন এজবাস্টন টেস্টের নায়ক। তবে এমন উদ্বেগজনক মুহূর্তেও মাঠে দাঁড়িয়ে হাসাহাসি করতে দেখা যায় জোফ্রা আর্চারকে। যে দৃশ্য মোটেই ভালো চোখে নেয়নি ক্রিকেট দুনিয়া। বাইশ গজে ক্রিকেটীয় স্পিরিট নিয়ে প্রশ্ন তুলে দেন নেটিজেনরা।

ঘটনায় আর্চারকে সমালোচনায় বিঁধেছেন রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস শোয়েব আখতারও। তবে শুধু আর্চারই নন, চতুর্থদিন আহত হয়ে মাঠ ছাড়ার সময় একদল উগ্র ইংরেজ সমর্থক স্মিথকে নিয়ে ব্যঙ্গ করেন গ্যালারি থেকে। পরে খানিকটা সুস্থ হয়ে ব্যাট হাতে দ্বিতীয়বার মাঠে নামেন সাবেক অজি অধিনায়ক। ঠিক তখনও একইভাবে গ্যালারি থেকে স্মিথকে উদ্দেশ্য করে ভেসে আসে ব্যাঙ্গাত্মক ধ্বনি। ঘটনায় ইংরেজ ফ্যানেদের নিন্দায় সরব হলেন অস্ট্রেলিয়া প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন। লর্ডসের দর্শকদের এমন ঘৃণ্য কাজকে ‘নোংরা’ আখ্যা দিয়েছেন তিনি।

স্যান্ডপেপার গেট কান্ডের ছায়া থেকে বেরিয়ে জোড়া শতরানে অ্যাশেজের প্রথম টেস্টেই দুরন্ত প্রত্যাবর্তন করেছেন স্টিভ স্মিথ। কিন্তু ইংরেজ সমর্থকদের ছি-ছি যেন পিছু ছাড়ছে না স্মিথ-ওয়ার্নারকে। তবে শনিবার আহত হয়ে মাঠ ছাড়ার সময় লর্ডস দর্শকদের এমন আচরণে ক্ষুব্ধ মরিসন। তার কথায়, ‘প্রত্যাবর্তনের পর বাইশ গজে ফিরে স্মিথের পারফরম্যান্স সম্মান ছাড়া কিছু দাবি করে না।’ তাই স্মিথের পাশে দাঁড়িয়ে অজি ব্যাটসম্যানকে ‘চ্যাম্পিয়ন’ বলে সম্বোধন করেছেন মরিসন। একই সঙ্গে স্মিথ ব্যাট হাতে ফের ব্যঙ্গকারীদের যোগ্য জবাব দিয়ে অ্যাশেজ ঘরে নিয়ে আসবে বলেই বিশ্বাস তার।

উল্লেখ্য, প্রথম ইনিংসে সামান্য সুস্থবোধ করে ব্যাট হাতে পুনরায় নামলেও দ্বিতীয় ইনিংসে স্মিথকে মাঠে নামানোর আর ঝুঁকি নেয়নি ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। পঞ্চমদিন সকালে স্মিথের কনকাশন টেস্টের পর আন্তর্জাতিক টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে প্রথমবার কনকাশন বদলির আবেদন করে তারা। আবেদন মঞ্জুর হওয়ায় টেস্ট ক্রিকেটে প্রথমবার ‘কনকাশন বদলি’ হিসেবে ইতিহাসে নাম তোলেন মার্নাস ল্যাবুশেন। বিশ্বক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা আইসিসি’র রুলবুকে গত জুলাইতে অন্তর্ভুক্তি ঘটে নয়া এই নিয়মের। যাতে টেস্ট ম্যাচ চলাকালীন কোনও ক্রিকেটার আহত হলে পরিবর্তন হিসেবে অন্য কোনও ক্রিকেটার ব্যাটিং, বোলিং কিংবা ফিল্ডিং করতে পারবেন।

স্মিথের বদলি হিসেবে মাঠে নেমে চতুর্থ ইনিংসে এদিন ম্যাচ বাঁচানো ইনিংস উপহার দেন ল্যাবুশেন। ২৬৭ রান তাড়া করতে নেমে ইংরেজ পেসারদের দাপটের মাঝেও ‘সুপার সাব’ ল্যাবুশেনের ৫৯ রানের ইনিংস ম্যাচ বাঁচাতে সাহায্য করে ব্যাগি গ্রিণদের। -কলকাতা টোয়েন্টি ফোর

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ
আগষ্ট ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« জুলাই   সেপ্টেম্বর »
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া