১০ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং | ২৬শে ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

adv

সমঝোতার পর এবার থর এক্সপ্রেস আটকে দিল পাকিস্তান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : জম্মু-কাশ্মীর সংকটের প্রতিবাদে ফের পদক্ষেপ নিল পাকিস্তান। সমঝোতা এক্সপ্রেস বন্ধের পর শুক্রবার (৯ আগস্ট) পাকিস্তান সরকার ভারতের সঙ্গে থর এক্সপ্রেসের মাধ্যমে রেল যোগাযোগও স্থগিত করার সিদ্ধান্ত জানিয়েছে। বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের লাহোরের সঙ্গে ভারতের রাজধানী দিল্লির সংযোগকারী সমঝোতা এক্সপ্রেসকে মাঝপথেই থামিয়ে দিয়েছিল পাক সেনারা। ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ রদ করে জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা প্রত্যাখ্যান করার কারণে পাকিস্তান এমন কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করছে।

পাকিস্তানের রেলপথ মন্ত্রী শেখ রশিদ জানায়, ‘আমরা থর এক্সপ্রেসও বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। যতক্ষণ আমি রেলমন্ত্রী রয়েছি ততক্ষণ পাকিস্তান ও ভারতের মধ্যে কোনও ট্রেন চলাচল করবে না।’ রশিদকে উদ্ধৃত করে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স পাকিস্তানের খোকরাপাড়ের সঙ্গে ভারতের মোনাবাও মধ্যে সাপ্তাহিক পরিষেবা বন্ধ রাখার এই সংবাদ জানিয়েছে। এর মাধ্যমে ভারত-পাকিস্তানের মধ্যকার চূড়ান্ত রেল যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হলো।

সমঝোতা এক্সপ্রেস স্থগিত করার পাশাপাশি বৃহস্পতিবার পাকিস্তান তার ভূখণ্ডে বলিউডের চলচ্চিত্র প্রদর্শনও নিষিদ্ধ ঘোষণা করে। জম্মু ও কাশ্মীরের জন্য বিশেষ মর্যাদার অবসান এবং ওই রাজ্যকে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে বিভক্ত করার কেন্দ্রের পদক্ষেপের প্রতিক্রিয়া হিসাবে ইসলামাবাদ একটি পাঁচ দফা পরিকল্পনা ঘোষণা করে।

একই সময়েই তারা জানায় যে, ভারতের সঙ্গে বাণিজ্যিক ও দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কও হ্রাস করবে তারা। এমনকি এই ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় ইসলামাবাদ থেকে ভারতীয় রাষ্ট্রদূতকেও বহিষ্কার করে পাকিস্তান, ফলে বর্তমানে দু’দেশের সম্পর্কের চরম অবনতি হয়েছে।

ভারত পাকিস্তানের এই পদক্ষেপের পর তাদের কূটনৈতিক ও বাণিজ্য সম্পর্কের অবমূল্যায়নের সিদ্ধান্ত পর্যালোচনা করার জন্য আবেদন জানায়। পাশাপাশি ভারতের তরফ থেকে এও দাবি করা হয় যে, দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের অবনতি ঘটিয়ে আসলে পাকিস্তান বিশ্বের দরবারে একটি উদ্বেগজনক পরিস্থিতি তুলে ধরার চেষ্টা করছে।

ইসলামাবাদের পক্ষ থেকে পাল্টা জবাবে বলা হয়েছে যে, তারা ভারতের কাশ্মীর সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের কাছে আবেদন করবে। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান সম্প্রতি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে কাশ্মীরে মধ্যস্থতার প্রস্তাব দেয়ার জন্য ধন্যবাদ জানালেও ভারত আমেরিকার ওই প্রস্তাব সম্পূর্ণরূপে প্রত্যাখ্যান করেছে।

এদিকে, পাকিস্তানের পক্ষ থেকে পরিষেবা স্থগিত করা সংক্রান্ত জটিলতার কারণে আজ (শুক্রবার) সমঝোতা এক্সপ্রেস প্রায় পাঁচ ঘণ্টা দেরিতে পুরানা দিল্লি রেলওয়ে স্টেশনে পৌঁছায়। সাধারণত ‘ফ্রেন্ডশিপ এক্সপ্রেস’ নামে পরিচিত, দ্বি-সাপ্তাহিক এই ট্রেন পরিষেবা ১৯৭৬ সালে দু’দেশের মধ্যে স্বাক্ষরিত সিমলা চুক্তির আওতায় চালু হয়েছিল।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ
আগষ্ট ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« জুলাই   সেপ্টেম্বর »
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া