২০শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং | ৫ই আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

adv

বাস থেকে ফেলে ছাত্র হত্যায় সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের মামলা

ডেস্ক রিপাের্ট : সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (সিকৃবি) চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী ঘোরি মো. ওয়াসিম আব্বাস আফনানকে বাস থেকে ফেলে হত্যার ঘটনায় মৌলভীবাজার মডেল থানায় হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সোমবার দুপুরে মৌলভীবাজার মডেল থানায় এ মামলা অভিযোগ দায়ের করেন সিকৃবির প্রক্টর প্রফেসর ড. মৃত্যুঞ্জয় কুণ্ডু।

মামলার আসামিরা হলেন বাসচালক জুয়েল আহমদ (৩০), হেলপার মাসুক মিয়া (৩১) ও সুপারভাইজার শেফুল মিয়া (৩৫)। এর মধ্যে সুপারভাইজার এখনও পালতক রয়েছেন।

ঘটনার সময় নিহত ওয়াসিমের সঙ্গে থাকা ১০ জন শিক্ষার্থীকে সাক্ষী করা হয়েছে। মৌলভীবাজার মডেল থানার ওসি সোহেল আহাম্মদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

উল্লেখ্য, শনিবার সন্ধ্যার দিকে ঢাকা-সিলেট রোডের শেরপুর এলাকায় উদার পরিবহনের ভাড়া নিয়ে কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে সিকৃবি শিক্ষার্থী ঘোরি মো. ওয়াসিম আব্বাস আফনানকে বাস থেকে ফেলে দেয় হেলপার। ঘটনাস্থলেই বাসের চাকার নিচে পিষ্ট হয়ে ওয়াসিমের মৃত্যু হয়।

পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত চালক এবং হেলপারকে আটক করে পুলিশ। রোববার সকালে গাড়িচালক জুয়েল আহমদকে সিলেট ও সহকারী মাসুদ মিয়াকে সুনামগঞ্জ থেকে গ্রেফতার করে মৌলভীবাজার মডেল থানা পুলিশ।

পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার দায় স্বীকার করেছে গ্রেফতারকৃতরা। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে তাদের।

মৌলভীবাজার মডেল থানার ওসি মো. সোহেল আহম্মদ বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। তবে আদালতে প্রেরণ করার পর আরও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ড আবেদন করব।

ওয়াসিম আফনান সিকৃবির বায়োটেকনোলজি অ্যান্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্টমেন্টের চতুর্থবর্ষের ছাত্র। বাড়ি হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার দেবপাড়া ইউনিয়নের রুদ্র গ্রামে। তার বাবার নাম মো. আবু জাহেদ মাহবুব ও মা ডা. মীনা পারভিন।

শনিবার বিকাল ৫টার দিকে সিলেট-ময়মনসিংহ রোডের উদার পরিবহন নামের একটি বাসের হেল্পার ও চালক মিলে এ হত্যাকাণ্ড চালায় বলে জানান ওয়াসিমের সহপাঠীরা।

প্রত্যক্ষদর্শী ও সিকৃবির শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, ময়মনসিংহ থেকে সিলেটগামী উদার পরিবহনের বাসে (ঢাকা মেট্রো-ভ-১৪-১২৮০) সিকৃবির ১১ শিক্ষার্থী ওঠেছিলেন। তারা শেরপুর এসে প্রয়োজনীয় কাজের জন্য নেমে যাচ্ছিলেন। তখন ভাড়া নিয়ে বাসের চালক ও হেলপারের সঙ্গে তাদের বাগ্বিতণ্ডা হয়।

একপর্যায়ে ভাড়া পরিশোধ করে তারা বাস থেকে নেমে আসছিলেন। ওয়াসিম আফনান ছিলেন সবার পেছনে। তিনি বাস থেকে নামার আগেই তাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়া হয়। এরপর চালক বাসের স্পিড বাড়িয়ে দেয়। বাসটি ওয়াসিমকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়।

সঙ্গে থাকা সহপাঠী ও স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে রাত পৌনে ৮টায় সিকৃবির ছাত্ররা ওসমানী হাসপাতালে ছুটে যান।

এ সময় উত্তেজিত ছাত্ররা বাসচালক ও হেলপারের গ্রেফতার দাবিতে বিক্ষোভ করেন। শিক্ষার্থীরা সড়কে আগুন জ্বালিয়ে অবরোধ করেন এবং শহরের কদমতলী বাস টার্মিনালে গিয়ে ভাঙচুর চালান।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ
মার্চ ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« ফেব্রুয়ারি   এপ্রিল »
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া