১৫ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং | ৩০শে কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

adv

যা যা খেলে হৃতপিণ্ড সুস্থ থাকে

news_img (1)ডেস্ক রিপোর্ট : মানবদেহের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অংশ হৃতপিণ্ড। আর প্রতিদিনের জীবনে নানা অনিয়মের কারণে হৃতপিণ্ডে ঝুঁকির মাত্রা বেড়ে যায়। ফলে প্রায়শই হার্টের সমস্যায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর ঘটনা ঘটে থাকে। কিন্তু এ অবস্থা থেকে আপনি নিজেকে মুক্ত রাখতে পারেন। যদি না আপনিও নিম্নবর্ণিত বিষয়গুলোকে প্রতিদিনের জীবনে প্রয়োগ করেন। মূলত হৃতপিণ্ডকে সুস্থ রাখতে ৮ ধরনের খাদ্য গ্রহণ একান্ত জরুরি। যার ভেতর দিয়ে আপনি অনেকটাই নিরাপদ থাকতে পারেন।

১. কমলালেবু

জনপ্রিয় ফিটনেস প্রশিক্ষক জোয়েল হারপার বলেছেন, কমলালেবুতে থাকা পেক্টিন হার্টের ক্ষতিকারক গ্ল্যাকটিন-৩ প্রোটিনের মাত্রা কমাতে সাহায্য করে৷

২. সূর্যমুখীর বীজ

সূর্যমুখীর বীজে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি এসিড এবং আঁশ আছে৷ আঁশ কোলেস্টেরলের মাত্রা কমাতে সাহায্য করে৷

৩. পপকর্ন
টিভি দেখতে দেখতে পপকর্ন খাওয়ার অভ্যাস অনেকেরই আছে৷ পুষ্টিবিদ সামান্থা বলেছেন, পপকর্ন অর্থাত ভুট্টায় পর্যাপ্ত মাত্রায় পলিফেনলস আছে৷ এটি এক ধরনের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা হার্টের জন্য ভালো৷

৪. মধু
পুষ্টিবিদ ক্রিস্টেন হেলে বলেছেন, ‘‘মধু প্রাকৃতিক চিনি৷ এটা হৃতপিণ্ডের জন্য ভীষণ উপকারী৷ মধু হৃতপিণ্ডে কোলেস্টেরলের মাত্রা কমাতে ভূমিকা রাখে৷

৫. ডাল
ফিটনেস ট্রেইনার জোয়েল হারপার এর মতে, সবধরনের ডাল হৃতপিণ্ডের জন্য ভালো৷ এগুলোতে আছে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড, আছে আঁশ৷ এছাড়া ক্যালসিয়ামও রয়েছে প্রচুর পরিমাণে৷

৬. ডিম
স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ অলি সাপিরো বলেছেন, ডিমের হলুদ অংশে ভিটামিন কে-২ রয়েছে, যা হৃতপিণ্ডে ট্রাফিক পুলিশের মতো কাজ করে৷ এটি খেলে ধমনীর দেয়াল শক্ত হয় না৷

৭. ডার্ক চকলেট
যারা চকলেট পছন্দ করেন, তাদের জন্য আনন্দের বিষয়৷ স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ডক্টর ন্যান্সি স্নাইড্যার্মা বলেছেন, ‘‘ডার্ক চকলেটে আছে ফ্ল্যাবিনয়েড, যা কার্ডিওভাসকুলার রোগ থেকে রক্ষা করে, তবে অতিরিক্ত ডার্ক চকলেট খাওয়া ভালো নয়৷’

৮. কফি
চিকিতসকদের মতে, দিনে দুই কাপ কফি আপনার হৃতপিণ্ডকে সব রোগ থেকে দূরে রাখতে সাহায্য করে৷

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া