১৫ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং | ৩১শে ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

adv

সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য ৯৮৮ ফ্ল্যাট নির্মিত হচ্ছে

imagesতোফাজ্জল হোসেন : ঢাকায় কর্মরত সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আবাসন সংকট নিরসনে ৯৮৮টি ফ্ল্যাট নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। বিশেষ করে রাজধানীর আজিমপুর ও মতিঝিলে সরকারি কলোনিতে ফ্ল্যাটগুলো নির্মাণ করা হবে। প্রায় ৩৯৭ কোটি টাকা ব্যয়ে এসব ফ্ল্যাট নির্মাণ করা হবে বলে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। ২০১৮ সালের মধ্যেই এ দুটি প্রকল্পের কাজ শেষ হবে।
সূত্র জানায়, রাজধানীতে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও অধিদপ্তরসহ প্রায় ৩ লাখ সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কর্মরত। এই বিপুল সংখ্যক কর্মকর্তা-কর্মচারীর মধ্যে মাত্র ১৫ হাজার আবাসন সুবিধা আছে। আবাসন সংকট সমাধানের লক্ষ্যে ২০১১ সালে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় ৯৮৮টি ফ্ল্যাট তৈরির জন্য পৃথক দুটি প্রকল্প তৈরি করে। বিভিন্ন প্রক্রিয়া শেষে গত মঙ্গলবার প্রকল্প দুটি একনেকে পাস হয়েছে। সরকারি আবাসন পরিদপ্তরের পরিচালক যুগ্নসচিব ড. আশরাফুল ইসলাম জানান, ঢাকা শহরের ২ লাখ ৮৫ হাজার কর্মকর্তা-কর্মচারীর থাকার জন্য কোনো সরকারি বাসাবাড়ির ব্যবস্থা নেই। প্রকল্প দুটি বাস্তবায়িত হলে আবাসন সমস্যা কিছুটা হলেও সমাধান হবে। প্রকল্পের জন্য ছোট আয়তনের খালি জমি রয়েছে। এ ছাড়া সেখানে রয়েছে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য কিছু বহুতল ভবন। কিন্ত ভবনগুলোর বর্তমানে ভগ্নদশা। সেগুলো ভেঙ্গে সেখানে ১৩ দশমিক ৯০ একর জমি পাওয়া যাবে। তার একাংশে ছয়টি ২০ তলা ভবন নির্মাণ করা হবে।
দুটি ভবনে থাকবে ১০০০ বর্গফুট আয়তনের ১৫২টি ফ্ল্যাট ও অন্য ৪টি ভবনে থাকবে ৮০০ বর্গফুট আয়তনের ৩০৪টি ফ্ল্যাট। জমির বাকি অংশে ভবিষ্যতে আরও ১৯টি ২০ তলা ভবন পর্যায়ক্রমে নির্মাণ করার পরিকল্পনা আছে। সেগুলো নির্মিত হলে আরও ১ হাজার ৪৪৮ বড় আয়তনের ফ্ল্যাট তৈরি হবে। প্রকল্পের প্রথম ধাপ বাস্তবায়নে ব্যয় ধরা হয়েছে ২শ’ ২০ কোটি ৪৪ লাখ ৯৮ হাজার টাকা। ২০১৮ সালের জুন মাসের মধ্যেই প্রথম ধাপের কাজ সম্পন্ন হবে।
মতিঝিল প্রকল্প: মতিঝিল সরকারি কলোনিতে বিদ্যমান ৮টি ভবন খুবই জরাজীর্ণ। একটি ভবন ইতিমধ্যে ভেঙ্গে ফেলা হয়েছে। অন্য ভবনগুলো ভেঙ্গে সেখানে ৪টি বহুতল ভবন নির্মাণ করা হবে। এসব ভবনে ৬০০ বর্গফুট আয়তনের ৫৩২টি ফ্ল্যাট তৈরি হবে। এ জন্য ১৭৬ কোটি ৪২ লাখ ১৫ হাজার টাকা  ব্যয় করা হবে। এসব কাজ ২০১৮ সালের জুন মাসের মধ্যে সম্পন্ন হবে।
সরকারের নিজস্ব অর্থে এই দুটি প্রকল্পেই গ্যাস, পানি, বিদ্যুৎ, লিফট, জেনারেটর, পার্কিংসহ যাবতীয় নাগরিক সুবিধা থাকবে। প্রকল্প দুটি বাস্তবায়ন হবে ।

 

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া