১৫ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং | ৩০শে কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

adv

ঢাবি জীববিজ্ঞান অনুষদের ডিন্স অ্যাওয়ার্ড পেলেন ৫০ শিক্ষার্থী

image_66271_0 (1)ঢাকা: ২০১১-১২ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক সম্মান পরীক্ষায় কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফল অর্জন করায় ৫০জন শিক্ষার্থীকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় জীববিজ্ঞান অনুষদের ডিন্স অ্যাওয়ার্ড দেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে আয়োজিত এক বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানে তাদের এই অ্যাওয়ার্ড দেয়াহয়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক প্রধান অতিথি থেকে ডিন্স অ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্ত কৃতি শিক্ষার্থীদের হাতে ক্রেস্ট ও সনদপত্র তুলে দেন।

জীববিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. ইমদাদুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রো-ভিসি (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. নাসরীন আহমাদ, প্রো-ভিসি (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. সহিদ আকতার হুসাইন ও কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. কামাল উদ্দীন বিশেষ অতিথি ছিলেন।

ধন্যবাদ জানান প্রাণিবিদ্যা বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মো. মোকসেদ আলী হাওলাদার। বিভাগীয় চেয়ারম্যানগণ স্ব স্ব বিভাগের অ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের নাম ঘোষণা করেন। সর্বোচ্চ নম্বরপ্রাপ্ত প্রাণ রসায়ন ও অণুপ্রাণ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী তাহিরা ইয়াসমীন অ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের পক্ষে অনুভূতি প্রকাশ করেন। এ সময় বিভিন্ন অনুষদের ডিন এবং সিনেট ও সিন্ডিকেট সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

যেসব শিক্ষার্থী বিএস ১ম বর্ষ সম্মান থেকে ৪র্থ বর্ষ সম্মান পর্যন্ত সকল কোর্সে মানোন্নয়ন পরীক্ষায় অংশগ্রহণ ছাড়াই কমপক্ষে ৩.৭৫ সিজিপিএ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছেন এবং যাদের ক্লাসে উপস্থিতির হার অন্তত ৮০ ভাগ, তাদের এই অ্যাওয়ার্ড দেয়া হয়। অ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের মধ্যে ৩৬ জন ছাত্রী এবং ১৪ জন ছাত্র। এর মধ্যে মৃত্তিকা, পানি ও পরিবেশ বিভাগের তিনজন, উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের ১২জন, প্রাণিবিদ্যা বিভাগের ১৪ জন, প্রাণ রসায়ন ও অণুপ্রাণ বিজ্ঞান বিভাগের তিনজন, অণুজীব বিজ্ঞান বিভাগের ১৩ জন, মৎস্য বিজ্ঞান বিভাগের দুইজন এবং জিন প্রকৌশল ও জীব প্রযুক্তি বিভাগের তিনজন শিক্ষার্থী ডিনস্ অ্যাওয়ার্ড লাভ করেন।

ভিসি অধ্যাপক আরেফিন সিদ্দিক ডিন্স অ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্ত কৃতি শিক্ষার্থীদের অভিনন্দন জানান।

তিনি বলেন, “বর্তমান সরকার নারীর ক্ষমতায়ন ও নারী শিক্ষার উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। ফলে আমাদের সমাজে নারীরা এগিয়ে যাচ্ছেন।”

অ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্ত মোট ৫০ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ৩৬ জন ছাত্রী হওয়ার ঘটনাকে দেশে নারীর ক্ষমতায়ন ও নারী অগ্রগতির সার্বিক প্রতিফলন হিসেবে আখ্যায়িত করেন।

ভিসি বৈষম্যহীন সমাজ প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা পালনের জন্য মেধাবী শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, “ভালো ফলাফল অর্জনের পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের সৎ, দেশ-প্রেমিক ও পূর্ণাঙ্গ মানুষ হিসাবে গড়ে উঠতে হবে। দেশ আমাকে কি দিয়েছে, চিন্তা না করে দেশকে আমি কি দিচ্ছি তা আগে ভাবতে হবে।’

দেশের সাধারণ মানুষের ভাগ্যোন্নয়নে আন্তরিকভাবে কাজ করার জন্য তিনি মেধাবী শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানান।

জয় পরাজয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ
জানুয়ারি ২০১৪
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« ডিসেম্বর   ফেব্রুয়ারি »
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া