১৫ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং | ৩০শে আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

adv

চলতি সপ্তাহেই রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের আলাদা বেতন কাঠামো

onaxf20131116162323ঢাকা: চলতি সপ্তাহের যেকোন দিনই ঘোষণা হচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক ও রাষ্ট্রায়ত্ত ৪ ব্যাংকের আলাদা বেতন কাঠামো। সূত্র জানিয়েছে, বাংলাদেশ ব্যাংক, সোনালী, জনতা ও অগ্রণী ও রূপালী ব্যাংকের জন্য আলাদা বেতন কাঠামো প্রধানমন্ত্রী অনুমোদন দিয়েছেন।এখন শুধু তা প্রজ্ঞাপন আকারে জারি করার আনুষ্ঠানিকতার অপেক্ষায়। এর মাধ্যমে প্রায় ৭০ হাজার ব্যাংক কর্মকর্তার দীর্ঘদিনের অপেক্ষার ইতি ঘটবে। 



সরকার শেষ মুহূর্তে রাজনৈতিক সিদ্ধান্তে এটি দিয়ে যাচ্ছে বলে সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন। এর আগে গত মাসে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য ২০ শতাংশ হারে মহার্ঘ ভাতা ঘোষণা করে সরকার। গত মাসের ৭ তারিখে সেটি ঘোষণা করে অর্থ মন্ত্রণালয়। 



অর্থ মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, প্রস্তাবিত বেতন কাঠামোতে ১১টি পদের জন্য আলাদা বেতন কাঠামো করা হয়েছে। বিদ্যমান পদ ১৯টি। এর আগে সচিব কমিটি কাঠামোতে সম্মতি দিয়ে অর্থ মন্ত্রণালয়ে পাঠায়। 



সূত্র জানিয়েছে, বেতন কাঠামোতে সর্বনিম্ন পদের বেতন ধরা হয়েছে ১১ হাজার টাকা। আর সর্বোচ্চ বেতন হচ্ছে ৫৫ হাজার টাকা। যা বর্তমানে ৪ হাজার ১শ টাকা ও ৩৩ হাজার ৫০০ টাকা। 



সূত্র মতে, সরকারি ব্যাংকগুলোর চেয়ে বেসরকারি ব্যাংকগুলোর বেতন কাঠামো অনেক বেশি হওয়ায় বাংলাদেশ ব্যাংক ও সরকারি বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর দক্ষ কর্মকর্তাদের অনেকেই চাকরি থেকে অব্যাহতি নিয়ে বেসরকারি ব্যাংকগুলোতে যোগ দিচ্ছেন। এ অবস্থায় বাংলাদেশ ব্যাংক ও সরকারি বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর জন্য পৃথক বেতন কাঠামো গঠনের উদ্যোগ নেয় সরকার।



সূত্র জানায়, অর্থমন্ত্রী গত ২ জানুয়ারি এ-সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অবহিত করার জন্য পাঠিয়েছিলেন। প্রধানমন্ত্রী জানার পর ১০ জানুয়ারি তা অর্থমন্ত্রীর কার্যালয়ে ফেরত আসে। এরপর প্রস্তাবটি সচিব কমিটির অনুমোদনের জন্য পাঠানো হয়।



সূত্র মতে, নতুন বেতন কাঠামোতে সরকারি ব্যাংকগুলোর জন্য আলাদা বেতন কাঠামোতে বলা হয়েছে, বাসস্থান ভাতার মধ্যেই বাসস্থানের রক্ষণাবেক্ষণ ভাতা থাকবে। স্বাস্থ্য ভাতার মধ্যেই ওষুধের জন্য প্রাপ্যতা অন্তর্ভুক্ত থাকবে। আপ্যায়ন ভাতা থাকলেও লাঞ্চ বা অন্যান্য আপ্যায়নের জন্য স্বতন্ত্র কোনো ভাতা থাকবে না।



সূত্র মতে, চলতি মাসের শুরুর দিকে প্রস্তাবিত বেতন কাঠামো চূড়ান্ত করে মন্ত্রণালয়ে পাঠায় সচিব কমিটি। রাষ্ট্রখাতের রূপালী ব্যাংক এর বাইরে থাকলেও সেটি এখানে নিয়ে আসা হয়।



নতুন কাঠামোয় বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক বা অর্থনৈতিক উপদেষ্টার পদ থেকে এবং সোনালী, জনতা ও অগ্রণী ও রূপালী ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক থেকে ১১টি পদের জন্য বেতন স্কেলের সুপারিশ করা হয়েছে। 



বেতন কাঠামোতে একজন মহাব্যবস্থাপকের বেতন প্রস্তাব করা হয়েছে ৪৫ হাজার টাকা, উপ মহাব্যবস্থাপকের বেতন ৩৫ হাজার টাকা। যুগ্ম পরিচালক ২৭ হাজার ও অতিরিক্ত পরিচালকদের বেসিক ২২ হাজার টাকা। আর সহকারী পরিচালকদের বেসিক হচ্ছে ১৭ হাজার টাকা। ব্যাংকের অফিসার পদের কর্মকর্তাদের বেসিক ১৩ হাজার টাকা।

জয় পরাজয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ
নভেম্বর ২০১৩
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« জুলাই   ডিসেম্বর »
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০  


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া